lang="en-US"> ষষ্ঠ শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১ - Shahriar One

ষষ্ঠ শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান ২০২১

কোভিড ১৯ এর কারণে সকল শিক্ষার্থীরা এখন এক বিভ্রান্তিকর সময় কাটাচ্ছ। দীর্ঘ আট মাস তারা এখন গৃহবন্দী। তাদের পরবর্তী ক্লাসের উত্তীর্ণ এর জন্য প্রত্যেকটি বিদ্যালয় এসাইনমেন্ট এর ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু অনেকেই এসাইনমেন্ট সম্পর্কে সম্যক ধারণা না থাকায় আরো বিভ্রান্তির মধ্যে পড়ছ। তাই অ্যাসাইনমেন্টের বিভ্রান্তি দূর করার জন্য আমরা নিয়মিত বিভিন্ন বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্টগুলো নিয়ে তোমাদের সামনে হাজির হয়েছি।

তোমরা চাইলেই তোমাদের প্রয়োজনীয় অ্যাসাইনমেন্টগুলো আমাদের ওয়েবসাইটে থেকেডাউনলোড করে নিতে পারো। প্রত্যেক বিষয়ে প্রত্যেক শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্টগুলো আমাদের ওয়েবসাইটে খুব সহজেই বিনামূল্যে ডাউনলোড করে নিতে পারো। যদি আমরা স্বাধীন বাংলাদেশের সভ্যতা জানতে চাই তাহলে আমাদের ভারত উপমহাদেশের প্রাচীন সভ্যতাকে সর্বপ্রথম জানতে হবে।

ভারত উপমহাদেশে সিন্ধু সভ্যতাকে প্রথম নগর সভ্যতা বলা হয়। সিন্ধু সভ্যতা, মিশরীয় সভ্যতা, মেসোপটেমীয় সভ্যতার সমসাময়িক ছিল। ভারত উপমহাদেশের সবচেয়ে পুরনো সভ্যতা সিন্ধু সভ্যতা। এই সভ্যতার খ্রিস্টপূর্ব ৪০০ অব্দে ভারত উপমহাদেশের সিন্ধু নদীর উপত্যকায় গড়ে ওঠে।

ভারত মহাদেশের সিন্ধু সভ্যতা খ্রিস্টপূর্বাব্দের আগে হারিয়ে যাওয়ার কারণ এখনো জানা যায়নি। উয়ারী বটেশ্বর নরসিংদী জেলার বেলাব উপজেলার দুইটি গ্রামের বর্তমান নাম। বিভিন্ন ধাতুর অলংকার ও মূল্যবান পাথর কাচের প্রতিসরাঙ্ক এর রাস্তা নির্মিত স্থাপত্য প্রকৃতিসম্মত সভ্যতার পরিচয় বহন করে।

আমরাদের নদীবন্দর অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য কেন্দ্র ছিল উয়ারী-বটেশ্বর। দীর্ঘদিন থেকে এই অঞ্চলে২০০০ সাল থেকে ওয়ারী বটেশ্বর অঞ্চলে প্রত্নতাত্ত্বিক খনন ও গবেষণা শুরু হয়। প্রতিবছর উৎখননে আবিষ্কৃত হয়েছে অমূল্য প্রত্নবস্তু। আর সমৃদ্ধ হচ্ছে বাংলাদেশের সভ্যতার ইতিহাস। প্রায় ২৪০০ বছর আগে বগুড়া শহর থেকে ১৩ কিলোমিটার উত্তরে করতোয়া নদীর তীরে গড়ে ওঠে মহাস্থানগড়।

তা সেই সময় পুন্ড্র নগর নামে পরিচিত ছিল। নগরটি ছিল সম্পূর্ণ ধন-সম্পদে পরিপূর্ণ। যা পরিখা দ্বারা সুরক্ষিত ছিল। যা কালের পরিক্রমায় কোন অংশে মাটির নিচে চাপা পড়ে জঙ্গলে পরিণত হয় । মহাস্থানগড় এর সঙ্গে অন্যান্য অঞ্চলের বাণিজ্যিক কারণে ভারত উপমহাদেশের যোগাযোগ ছিল। বাণিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রস্থল তৈরি হয়েছিল। তাহলে ব্যবসার মাধ্যমে এবং যোগাযোগের মাধ্যমে এই এলাকায় ঘনবসতি ছিল।

এছাড়াও অনেক প্রাচীন বিশ্বসভ্যতা আমাদের ইতিহাসে উঠে এসেছে। যেমন মিশরীয় সভ্যতা। নীল নদের তীরে সভ্যতা গড়ে উঠেছিল এবং মিশরে উপরে গড়ে উঠেছে বলে এর নাম মিশরীয় সভ্যতা। হোয়াংহো ও ইয়াংসিকিয়াং নদীর তীরে খ্রিস্টপূর্ব ১০০০০ অব্দে গড়ে উঠেছিল চীনের নগর সভ্যতা। সভ্যতার বিকাশ ঘটাতে চীনের কয়েকটি রাজবংশ বিশেষ ভূমিকা রেখেছিল। এছাড়াও রয়েছে পারস্য, গ্রিক ও রোমান সভ্যতা। যা ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে সবসময়ই লিখা থাকবে।

চতুর্থ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রশ্নের সমাধান

তোমার পরিবারের সদস্যদের কোন কোন কাজ টেকসই উন্নয়নের অন্তরায় তা চিহ্নিত করে একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করো।

 

Exit mobile version