ইমোশনাল ফেসবুক স্ট্যাটাস ২০২১

ইমোশনাল ফেসবুক স্ট্যাটাস আমাদের ওয়েবসাইটে পাবেন। আমরা জানি মানুষ অনেক ইমোশনাল। জীবনের বিভিন্ন পরিস্থিতিতে মানুষ ইমোশনাল হয়ে যাই। তবে অতীতের মতো মানুষ এখন আর একাকীত্ব সময় কাটে না। প্রত্যেকটি মানুষের বন্ধুত্ব রয়েছে। বন্ধুদের সাথে ইমোশনাল কথাগুলো মানুষ জানাতে চাই বা তাদের সঙ্গে শেয়ার করতে চাই।

আপনি যদি কোন কাজে ইমোশনাল হয়ে যান তাহলে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিতে চান। তবে আপনি যদি নিয়মিত ধরনের পোস্ট দেন তাহলে আপনি সেই কাজটি করতে পারবেন। তবে অনেকেই আছেন যারা ইমোশনাল ফেসবুক স্ট্যাটাস নিজেদের ভাষায় গুছিয়ে বা বুঝিয়ে লিখতে পারেন না। তাদের উদ্দেশ্যে আমাদের ওয়েবসাইটে একটি সুন্দর পোস্ট করেছি।

যারা মনে করছেন মনের কথা গুলো গুছিয়ে বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন তারা আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ইমোশনাল ফেসবুক স্ট্যাটাস কপি করে নিতে পারেন। তাই বন্ধুরা, ইমোশনাল ফেসবুক স্ট্যাটাস পেতে আমাদের ওয়েবসাইটের নিচের দিকে চলে যান। সেখান থেকে আপনারা মনের মত ইমোশনাল ফেসবুক স্ট্যাটাস কপি করে নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করুন।

প্রত্যেকটি মানুষেরই কম বেশী ইমোশন থাকে। একজন মানুষ হিসেবে আপনার ও ইমোশন রয়েছে। আপনার ইমোশন রয়েছে বলেই এবং আপনি মাঝে মাঝে ইমোশনাল হয়ে যান বলেই এই পোস্টটি এত মনোযোগ দিয়ে পড়ছেন। হয়তো জীবনে চলার পথে কোন কারণে কারো থেকে কষ্ট পেয়েছেন। হয়তোবা জীবনে কোন কিছুর প্রতি জন্য প্রচুর পরিশ্রম করেও সে জিনিসটি অর্জন করতে পারেননি।

সেই ক্ষেত্রে আপনি ইমোশনাল হয়ে যাওয়াটাই স্বাভাবিক। ইমোশনাল হয়ে গেলে হয়তো আপনি স্বাভাবিক নাও থাকতে পারেন। যারা নরম মনের অধিকারী অধিকারীনি তারা অল্পতেই ইমোশনাল হয়ে যান। সেই জন্য তারা অল্প ইমোশনাল হয়ে গেল কেঁদে ফেলে। তবে আমরা বলবো যে ইমোশনাল না হয় আপনারা প্রত্যেকটি মুহূর্তকে শক্ত মনোবল দিয়ে প্রতিহত করতে শিখুন।

জীবনের প্রতিটি কাজে এবং প্রতিটি ছোটখাটো বিষয়ে আপনি যদি বেশি ইমোশনাল হয়ে যান, তাহলে নিজেকে রক্ষা করার জন্য বিভিন্ন মোটিভেশনাল বই পড়তে পারেন। পৃথিবী বিখ্যাত লেখক গান বিভিন্ন সময়ে মানুষের মন কে কেন্দ্র করে বিভিন্ন বই লিখে গেছেন। বই পড়লে আপনারা জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত বা পরিস্থিতিকে মানিয়ে নিতে চলতে শিখবেন।

তাই আপনারা যারা বর্তমান মুহূর্তে ইমোশনাল হয়ে যাচ্ছেন এবং ইমোশনকে কন্ট্রোল করতে পারছেন না, তারা আমাদের ওয়েবসাইটের সহায়তা গ্রহণ করে ইমোশনাল ফেসবুকে স্ট্যাটাস নিয়ে নিতে পারেন।

বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তির যুগে প্রতিটি শ্রেণীর প্রতিটি বয়সের মানুষের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট রয়েছে। মানুষ ছোট থেকে বড় ধরনের ঘটনাগুলো ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিতে চাই। মানুষ তার বন্ধুদেরকে সুখ-দুঃখের ঘটনাগুলো শেয়ার করতে চাই। আপনি যদি কোন কারনে জীবনে চলার পথে পরাজিত হয়ে থাকেন এবং ইমোশনাল হয়ে যান তাহলে তাও বন্ধুদেরকে জানাতে পারেন।

আপনার বন্ধুদেরকে যদি আপনি আপনার ইমোশনের কথা জানান তাহলে আপনার যে সকল প্রকৃত এবং ভালো বন্ধু রয়েছে, তারা আপনেরেই দুঃখের সময় পাশে দাঁড়াবে। কিন্তু আপনি যদি তাদের কাছে মুখ খুলে কিছু না প্রকাশ করেন তাহলে হয়তো অনেকেই বুঝতে পারবেন না।

তাই মার্জিত ভাষায় সুন্দর করে আপনার মনের ইমোশনাল কথা গুলো ফেসবুকে ইমোশনাল ফেসবুক স্ট্যাটাস হিসেবে দিতে পারেন। আমাদের ওয়েবসাইট থেকে আপনারা ইতোমধ্যে ইমোশনাল ফেসবুক স্ট্যাটাস পেয়ে গিয়েছেন। পরবর্তী সকল ধরনের পোস্ট পেতে আপনারা আমাদের সাথেই থাকুন।

Exit mobile version