ভালবাসার রোমান্টিক স্ট্যাটাস কালেকশন ২০২০

লেখকঃ সুমন

1/ অপার স্থিরতা নিয়ে দূর থেকে ছুঁয়ে থাকি
তোমার অতল…
চেনো সেই, স্পর্শ চেনো? মনে-মনে জেগেছে সন্দেহ?

2/ মনটা হারিয়ে গেছে…এ নিয়ে কি কোনো চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হবে?? আসলে,প্রেমিকার রং কেমন হয়, কোন রঙে তারা নিজেকে প্রকাশ করে দেখিবার বড় স্বাদ।

লেখকঃ গাজিবর রহমান

১/ আমার আবিরে রাঙাবো তোমায়
রংধনুর কুঁড়ে ঘরে,
সুরের তরী ভাসিয়ে দেবো
মনের তীরে তীরে।।

২/ সাগর ভরা দুঃখ মন
—গাজিবর রহমান
কত যে মায়া আর মমতা, কত না মধুর স্মৃতি।
কত না আশা, কত না ভরসা, কত না স্বপ্ন আঁকা।
সকল কিছুই পূর্ণ হলো, তবুও যেন ফাঁকা।
হৃদয়ের কৃষ্ণফলকে লিখেছি যার নাম, সে তো চলে গেল।
গুনে গুনে জীবন থেকে সময় চলে যায়, ফিরবেনা সে আর।
কানায় কানায় সুখ, শান্তি- সাগর ভরা দুঃখ মন।

৩/ ছল

–গাজিবর রহমান

নুপুর পায়ে ঝুমুর ঝুমুর

জল আনিতে যায়,

কোমর খানি হেলে দুলে

পেছন পেছন ধায় ।।

কোথায় যেন ঝর্ণাধারা

সেথায় যাচ্ছ নারী ?

আমি যে তোর সাথে যাবো

পৌঁছে দেবো বাড়ি ।।

কোন গ্রামে বাড়ি তোদের

কিবা পরিচয়,

নামটি আমার শ্যাম কালাচান

নেইকো তোদের ভয় ।।

ঐ যে দূরে বটের গাছ

শুদ্ধ শীতল ছায়া,

একটু বসে নে ঝিরিয়ে

তুই যে আমার প্রিয়া ।।

তৃষ্ণায় ফাটে বুকের ছাতি

দেনা একটু জল,

মনটা আমি দিলাম তোকে

তাইতো করি ছল ।।

৪/ মধুসমাধি গড়বো
–গাজিবর রহমান
হেমন্তে কাঁচা হলুদ রোদে, একটু বসি কৃষ্ণচূড়ার পাশে।
অনেক দিন ধরে, তাকে একটা কথা বলবো বলে-
মনে মনে প্রতিজ্ঞা করেছি ।
আমি বসন্তের মনের মোহনায়, মিশে যেতে চাই ।
সেখানে চাঁদের আলো, জলে মিশে পিরিত করে।
আবার নতুন করে, জীবন নামের বেহালার তারে সুর উঠুক ।
প্রকৃতির শরীরের জোয়ারে, পাল তুলে নৌকা ভেসে যাক ।
যৌবনের আঁঠা দিয়া, সাদা কাগজের ঘুড়ি বানিয়ে-
ওই নীল আকাশে আমার মন উড়িয়ে দেবো ।
পুষ্প দেহের মধুপান করে,
আমার ত্রিশ বছরের তৃষ্ণা মেটাবো ।
গোলাপের গোপন শরীরের নাব্যতা মেপে, সাঁতার কাটবো ।
মধু বসন্ত, তুমি কখনো শুনেছ ?
শরীরের আহাজারি করুন কান্না ।
আমি ভোমর হয়ে, পুষ্প দেহে আলিঙ্গন করব ।
আমি তোমার ক্ষণস্থায়ী জীবনে পরিপূর্ণতা এনে দেবো ।
চন্দ্রমল্লিকার নাভিমূলে নেমে, ভালোবাসার রুপ সাগরে ভাসবো ।
তার অক্ষত শরীরের মধু পেয়ালায়-
আমি প্রশান্তির ডানা মেলে উড়বো ।
এই সুন্দর পদ্মনাভী মূলে, আমি আমার মধুসমাধি গড়বো ।

৫/ তুমি এসে কিছু বলে যাও
হৃদয়ের খাতা এঁকে,
লিখে দাও বড়ো করে
তোমার নামটি বুকে।।

৬/ ভালোবাসার আশা
— গাজিবর রহমান

স্মৃতির মালা হৃদয়ে গেঁথে, দুঃখ করেছি জয়।
তোমার ছায়া পাশে নিয়ে, পথ চলেছি বহুদিন।
আমার ভালোবাসার ঘর ভেঙ্গে, কার ঘরে আজ তুমি।
রাত্রি এলে চোখের পাতায়, স্বপ্ন কেঁদে উঠে।
বিরহ আজ ডানা ভেঙ্গে পড়ে, স্মৃতির মেঘলা আকাশে ।
ভুলনা, ভুলবনা হৃদয়ে জাগুক শুদ্ধ ভালোবাসার আশা ।

৭/ পাহাড়, নদী ভালো লাগে
ভালো লাগে বন,
তার চেয়ে অধিক ভালো
তোমার অবুঝ মন।।

৮/ ডাহুক ডাকে বর্ষা এলো
সজল চোখের পাতায়,
কখন যাবো প্রিয়ার কাছে
গোপন মনের ব্যথায়

৯/ তোরে নিয়ে নক্সা আঁকি
আমার মনের পটে,
তুই যে মনে পাখনা মেলে
উড়বি হৃদয় মাঠে।।

১০/ প্রেমে মনের আরশি ফাটে
তেষ্টায় ফাটে বুকটা,
কোন ঘরেতে বাঁধলে বাসা
কেড়ে নিলে সুখটা।।

১১/ বাবুই পাখি বাসা বাঁধে
রসের খেজুর গাছে,
ভালোবাসার নীল খামে
তোমার চিঠি আছে।।

১২/ তোমার বুকে আমার বাসা
নীল ব্যথার মায়া,
আমার মনে বসত করে
তোমার দেহের ছায়া।।

১৩/ শ্বেত পদ্ম ভাসে
—গাজিবর রহমান
কাজল কালো তোমার কেশ
মায়া ভরা মুখ,
ঊরু দুখান সরু সরু
পুষ্ট ভারী বুক ।।

চিকন চাকন কোমর খানায়
মধুর ভেলা ভাসে,
নিতম্বদ্বয় রসের সুরা
শ্বেত পদ্ম ভাসে ।।

রাঙা গভীর চন্দ্র নাভি
চন্দন বনে আলো,
অক্ষত এক পক্কবিম্ব
সেখানে জল ঢালো।।

তরীখানা তরতরিয়ে
ভিড়ে এসে তটে,
নারী তুমি উদয় সূর্য
পুরুষ আধার বটে।।

১৪/ কড়ি দিয়ে আমি নয়
মনের দাম চাই,
সামনের বছর তোমায় আমি
আবার যেন পাই।।

১৫/ প্রমোদতরী
— গাজিবর রহমান
তোমার দেহে আমার বাস, আঁখিতে স্বপ্ন আঁকি ।
পরখ করে অন্তর্বাস, আমি ছুঁয়ে যাই ।
তোমার মন আমার আয়না, দেহ কামের বাসা ।
তোমার গল্প পাখা মেলে, আমার কবিতার ছন্দে ।
স্বপ্ন যেন বাস্তব হলো, তোমায় স্পর্শ করে ।
প্রেম প্রহরে প্রমোদতরী, সুখ শান্তির জলে ।

১৬/ জ্যোৎস্না পালকে পূর্ণিমা
—-গাজিবর রহমান
গভীর নিশিতে নেমে এলো, জ্যোৎস্না পালকে পূর্ণিমা ।
প্রিয়ার চোখে কোজাগরী চাঁদ, হৃদয় ভুলানো আঁখি ।
বাঁধ ভেঙ্গে মন উছলে পড়ে, প্রেমের প্রমোদতরী
শাল পিয়ালে বাগান বিলাস, শান্তির বাসা বাঁধে ।
চাঁদ তুলে দেয় সমুদ্র জোয়ার, জল করে সহবাস ।
চন্দ্র আলো ঢেউ তুলে দেয়, দেহে জাগে দোলা ।
প্রকাশ-২৬ ফাল্গুন ১৪২৬ * ১০০৩২০২০ * ঘুমঘর

Updated: March 12, 2020 — 5:25 pm

The Author

শাহরিয়ার হোসেন

শাহরিয়ার হোসেন একজন ক্ষুদ্র ব্লগার। লিখতে খুব ভালোবাসেন। অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগে ২০১৮ সালের জানুয়ারী থেকে লিখছেন। কাজের চেয়ে নিজের নাম প্রচারের ওপর বেশি গুরুত্ব দেন। সে চিন্তা থেকেই এই ব্লগের উৎপত্তি। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে অনার্স কমপ্লিট করেছেন। বর্তমানে একই বিভাগে মাস্টার্স এ অধ্যায়নরত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *