চিত্রের পদার্থ দুটির গলনাংক ও হিমাংক কি একই? পাঠ্যপুস্তকের আলােকে বিশ্লেষণ কর।

ষষ্ঠ শ্রেণি বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট প্রশ্নের সমাধান ডাউনলোড ২০২০

ষষ্ঠ শ্রেণির বিজ্ঞান বিষয়ক চারটি প্রশ্নের মধ্যে দুইটি প্রশ্ন বেশ কঠিন। প্রথম দু’টি প্রশ্ন সংক্ষিপ্ত এবং পরের দুইটা প্রশ্ন রচনামূলক। আমরা ইতিমধ্যে সংক্ষিপ্ত প্রশ্নের উত্তর আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে।

আজকের এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনি পরবর্তী দুটি রচনামূলক প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন। এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন এটি চতুর্থ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর ষষ্ঠ শ্রেণির বিজ্ঞান বিষয়ের সমাধান। এই এসাইনমেন্ট সিলেবাসটি গতকাল অর্থাৎ 18 ই নভেম্বর তারিখে প্রকাশিত হয়।

তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে চলুন মূল আলোচনায় যাওয়া যাক।

প্রশ্ন দেওয়া হয়েছে চিত্রে দুটি পদার্থ। সেখানে দেখা যাচ্ছে একটি মোমবাতি এবং অন্যটি বরফ। পদার্থটির গলনাংক ও হিমাংক কি একই তা জানতে চাওয়া হয়েছে। তাহলে চলুন দেখে নেয়া যাক প্রশ্নের উত্তর।

চিত্রের পদার্থ দুটির গলনাংক ও হিমাংক কি একই? পাঠ্যপুস্তকের আলােকে বিশ্লেষণ কর।

বিশ্লেষণঃ– ৫৭ ডিগ্রী সেলসিয়াসই হলাে মােমের হিমাংক। কেননা ৫৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রায় মােম জ্বলতে শুরু করে। আবার মােমের গলনাংকও হয় ৫৭। ডিগ্রী তাপমাত্রায়। অথ্যাৎ একই বস্তুর গলনাংক এবং হিমাংক একই৷

কিন্তু পানির হিমাংক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস। তাহলে পানির গলনাংকও কিন্তু শূন্য ডিগ্রী সেলিসিয়াস। কোন একটি বস্তুর তাপমাত্রা যদি হিমাংকের উপরে থাকে এবং তা পরিপার্শ্বিক তাপমাত্রার চেয়ে বেশি হয়, তবে পারিপার্শ্বিক তাপমাত্রায় বস্তুটিকে রেখে দিলে তা ধীরে ধীরে তাপ হারাতে থাকে। ফলে এর তাপমাত্রা কমতে থাকে। এবং তাপমাত্রা যখন হিমাংক চলে আসে তখন এটি কঠিনে পরিণত হয়।

মন্তব্যঃ-একই বস্তুর গলনাংক এবং হিমাংক একই হ্য। উদ্দীপকের বস্তু দুইটি আলাদা। তাই বস্তু দুইটির হিমাংক ও গলনাংক একে অন্যটির থেকে আলাদা। যেমন আমরা দেখেছি যে মােমের চালনাংক এবং হিমাংক ৫৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস সেখানে পানির গলনাংক এবং হিমাংকের তাপমাত্রা শূন্য (০) ডিগ্রী সেলসিয়াস। সুত


এই বিষয়ের আরো প্রশ্নের উত্তর

ক) বিদ্যুৎ পরিবাহী ও অপরিবাহী পদার্থের নাম লিখ।

খ) বিদ্যুৎ পরিবহনে তামার তার ব্যবহারের কারণ কী?

গ) উদ্দীপকের ১ম চিত্রে মােম গলে পড়ার পরবর্তী অবস্থা ব্যাখ্যা কর।

ঘ) চিত্রের পদার্থ দুটির গলনাংক ও হিমাংক কি একই? পাঠ্যপুস্তকের আলােকে বিশ্লেষণ কর।

শাহরিয়ার হোসেন

শাহরিয়ার হোসেন একজন ক্ষুদ্র ব্লগার। লিখতে খুব ভালোবাসেন। অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগে ২০১৮ সালের জানুয়ারী থেকে লিখছেন। কাজের চেয়ে নিজের নাম প্রচারের ওপর বেশি গুরুত্ব দেন। সে চিন্তা থেকেই এই ব্লগের উৎপত্তি। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে অনার্স কমপ্লিট করেছেন। বর্তমানে একই বিভাগে মাস্টার্স এ অধ্যায়নরত।

Related Articles

Back to top button
Close
Close