ডিগ্রি প্রথম বর্ষ প্রশ্ন ফাঁস ২০২০ (সত্যতা যাচাই)

ডিগ্রি প্রথম বর্ষের পরীক্ষায় কি প্রশ্ন ফাঁস হয়? আপনাদের অনেকের মনেই এই প্রশ্নটি ঘুরপাক খায়। আজকের লেখায় আমরা খুঁজবো সত্যিই কি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রী প্রশ্নপত্র ফাঁস হয় নাকি সবই গুজব! তাহলে আর দেরি নয়। চলো মূল আলোচনায় যাওয়া যাক।

অনেকেই বলে থাকে ডিগ্রী পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস হয়ে থাকে। এটি আসলে মোটেই সত্যি কথা নয়। বাংলাদেশের আর কোন পরীক্ষায় কোন প্রকারের প্রশ্নপত্র ফাঁস হয় না।

তুমি হয়তো অনলাইনে দেখে থাকবে, এই মাত্র প্রশ্ন ফাঁস বা এত টাকা দিলে প্রশ্নপত্র দিব। আবার অনেকে লিখে এইমাত্র পত্র প্রশ্নপত্র হাতে পেলাম, টাকা পাঠাও প্রশ্নপত্র দিব ইত্যাদি ইত্যাদি। এগুলোর একটিও সত্য নয়।

বর্তমান সরকার প্রশ্ন ফাঁস রোধে কতকগুলো পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। যেগুলো খুবই কার্যকরী ভূমিকা পালন করেছে। উদাহরণস্বরূপ আমরা জেএসসি বা পিএসসি পরীক্ষার কথা ধরতে পারি। কোন পরীক্ষায় কোন ধরনের প্রশ্নপত্র ফাঁস বা প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে এমন অভিযোগ ওঠেনি।

সেজন্য আমাদের সবার উচিত শিক্ষা মন্ত্রী কে ধন্যবাদ জানানো। কারণ প্রশ্ন ফাঁস একটা জাতির শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংসের প্রধান নিয়ামক হিসেবে কাজ করে।

কেন আর প্রশ্ন ফাঁস হয় না?

প্রশ্ন ফাঁস না হওয়ার পিছনে অনেকগুলো নিয়ামক প্রধান ভূমিকা পালন করে। সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য গুলো নিচে আলোচনা করা হলো।

সরকারের কঠোর অবস্থানঃ প্রশ্নফাঁস রোধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। সরকারের নীতি বিভিন্ন মহলে ব্যাপক সমাদৃত এবং প্রশংসিত হয়েছে।

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভূমিকাঃ সরকারের নির্দেশের পর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ব্যাপক তৎপর। প্রশ্ন ফাঁস বা প্রশ্ন ফাঁসের গুজব ছড়ালে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতায় বন্ধ হয়ে গেছে বাংলাদেশের প্রশ্ন ফাঁস।

জনগণের সচেতনতাঃ জনগণ এখন প্রশ্ন ফাঁস রোধে খুবই সচেতন। মানুষ বুঝে গেছে প্রশ্ন ফাঁস আসলে তাদের নিজেদেরই ক্ষতি করছে। সে কারণে আর কেউ প্রশ্ন ফাঁসের সাথে জড়িয়ে পড়ে না বা ফাঁসকৃত প্রশ্নের আশায় ঘুরে বেড়ায় না।

ডিগ্রি প্রথম বর্ষ প্রশ্ন ফাঁস ২০১৯

আপনি কি প্রশ্ন ফাঁসের পেছনে দৌড়াচ্ছেন? তাহলে আপনার মত বোকা কেউ নেই। এসব করে আপনি আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট করছেন। পরীক্ষার আর বেশি দেরি নাই। আপনার উচিত ভালো একটি সাজেশন সংগ্রহ করে সে অনুযায়ী পড়াশোনা করা।

আপনার মনে প্রশ্ন হতে পারে আমরা কেন এসব লিখছি। আমাদের এসব লেখার পেছনে একটাই উদ্দেশ্য। আর তা হলো জনসচেতনতা সৃষ্টি করা বা যারা প্রশ্নফাঁসের পিছে ঘুরে বেড়ায় তাদের কে সচেতন করা।

আপনাদের কারণে উচিত নয় প্রশ্ন ফাঁসের পিছনে ছোটা বা প্রশ্ন ফাঁস হবে সে আশায় বসে থাকা। পরীক্ষার পূর্বের মুহূর্ত অনেক মূল্যবান। আপনাদের উচিত সেই সময়কে কাজে লাগানো।

স্বাধীন-বাংলাদেশের-অভ্যুদয়ের-ইতিহাস প্রশ্ন ফাঁস | ডিগ্রী পরীক্ষা ২০১৯

আপনি কি ডিগ্রী প্রথম বর্ষের স্বাধীন-বাংলাদেশের-অভ্যুদয়ের-ইতিহাস বিষয়ের প্রশ্নপত্র খুঁজছেন? তাহলে আপনার জন্যই এই পোস্ট। ডিগ্রি প্রথম বর্ষের রুটিন অনুযায়ী উক্ত বিষয়ের পরীক্ষা নভেম্বর মাসের ২৪ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার পূর্বে অনেককে দেখা যায় স্বাধীন-বাংলাদেশের-অভ্যুদয়ের-ইতিহাস বিষয়ের প্রশ্নপত্র লিখে গুগলে সার্চ করতে।

আপনি একটি কাজ করতে পারেন। আমরা ডিগ্রি প্রথম বর্ষের জন্য একটি সাজেশন তৈরি করেছি। আপনি চাইলে খুব সহজেই ডিগ্রি প্রথম বর্ষের সাজেশন ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

ডিগ্রি প্রথম বর্ষের সাজেশন ২০১৯ সকল বিষয়

আমরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের ছাত্র ছাত্রীদের সুবিধার কথা চিন্তা করে প্রথম বর্ষের সাজেশন তৈরি করেছি। আমাদের এ সাজেশনটি ডিগ্রী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সেরা ব্যতিক্রম সাজেশন অনুসারে তৈরি। বিগত বছরের প্রশ্নপত্র এনালাইসিস করে এই সাজেশনটি প্রণয়ন করা হলো।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ আমরা কোন ধরনের প্রশ্ন ফাঁস করিনা বা প্রশ্ন ফাঁস কে অনুপ্রাণিত করিনা। প্রশ্ন ফাঁস আইন বিরোধী কাজ। এটা ঘৃণ্য অপরাধ। জনগণের মধ্যে সচেতনতা তৈরি আমাদের এই লেখার প্রধান এবং একমাত্র উদ্দেশ্য। সবাইকে ধন্যবাদ।

Updated: March 13, 2020 — 1:38 pm

The Author

শাহরিয়ার হোসেন

শাহরিয়ার হোসেন একজন ক্ষুদ্র ব্লগার। লিখতে খুব ভালোবাসেন। অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগে ২০১৮ সালের জানুয়ারী থেকে লিখছেন। কাজের চেয়ে নিজের নাম প্রচারের ওপর বেশি গুরুত্ব দেন। সে চিন্তা থেকেই এই ব্লগের উৎপত্তি। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে অনার্স কমপ্লিট করেছেন। বর্তমানে একই বিভাগে মাস্টার্স এ অধ্যায়নরত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *