একটা কষ্টের চিঠি

প্রত্যেকটি মানুষের জীবনে কষ্ট হয়েছে এবং এই কষ্টের বেড়াজালে মানুষ জর্জরিত হয়ে একসময় এতটাই মানসিক দিক থেকে দুর্বল হয়ে যায় যে তখন তার আর কিছু করার থাকে না। আপনি যদি আপনার প্রিয় মানুষের প্রতি অথবা অন্য কারো প্রতি কষ্ট পেয়ে থাকেন তাহলে তার সামনে হয়তো কষ্ট প্রকাশ করতে পারছেন না এবং এক্ষেত্রে কষ্ট প্রকাশ করার জন্য আপনারা একটা কষ্টের চিঠি লিখে তাদেরকে জানিয়ে দিতে পারেন আপনাদের কষ্টের কারণ। বাস্তব জীবনে চলতে গেলে আমরা বিভিন্ন মানুষের থেকে অথবা প্রিয় মানুষের থেকে কষ্ট পেয়ে থাকি।

একটা সম্পর্কের শুরুতে যখন একটা মানুষ সকল কিছু নতুন ভাবে ভাবতে শুরু করে তখন সেখানে সুখের উপস্থিতি থাকে, কিন্তু কিছুদিন পার হওয়ার পরে সেই সুখ আবার হাওয়ায় মিলিয়ে যায় এবং বাস্তবতার নিরিখে ভাবতে গেলে তখন বিভিন্ন ভাবে মানুষ কষ্ট দিতে থাকে। প্রথমদিকে হয়তো আবেগের বশীভুত তো হয়ে আপনাকে অনেক সুন্দর সুন্দর কথা শোনাবে এবং অনেক প্রতিশ্রুতি প্রদান করবে। কিন্তু একটা সময় যখন আপনার প্রতি তার চাওয়া পাওয়ার শেষ হয়ে যাবে অথবা সেই ব্যক্তি যদি স্বার্থপর হয়ে থাকে তাহলে আপনাকে আর যোগাযোগের তালিকায় রাখবে না।

কিন্তু আপনি তো তাকে মনেপ্রাণে ভালোবেসে ফেলেছেন এবং এ ভালবাসার ফলশ্রুতিতে আপনি তাকে কখনোই আর ভুলতে পারছেন না। কিন্তু আপনার ভেতরের কষ্ট আরেকজন মানুষ কখনোই দেখতে পারবে না বা বুঝতে পারবে না। তাই বলে কি আপনি আপনার কষ্ট নিজের ভেতরে চেপে চেপে রেখে দেবেন। এটি রাগ করে যদি আপনার ভেতরের কষ্ট সেই ব্যক্তিটি কে বোঝাতে পারেন এবং আপনার ভেতরের কষ্টের মাধ্যমে আপনি দিনে দিনে যে কতটা জর্জরিত এবং নিষ্পেষিত হয়ে যাচ্ছেন তা যদি জানাতে পারেন তাহলে তার বোধোদয় হতেও পারে।

হার পাওয়ার প্রজেক্ট ট্রেনিং বিনামূল্যে মেয়েদের আউটসোর্সিং বিষয়ে ট্রেনিং কারা পাবে, কবে শুরু হবে, কিভাবে করতে হবে

অন্যের ভেতরের বোধোদয় জাগ্রত করার জন্য আপনারা একটা কষ্টের চিঠি লিখেন এবং এই কষ্টের কারণ গুলো এত সুন্দর ভাবে উল্লেখ করুন যাতে সেই মানুষটির অন্তরে নাড়া দেয় বিষয়গুলো। কিন্তু আপনি যদি আপনার কষ্ট শুধু চেপে রাখেন তাহলে এতে আপনি শুধু কষ্ট পেয়ে যাবেন বরং কোনো সমাধান হবে না এবং অন্য অপর মানুষ জানতে পারবে না।

তাই নিজের কষ্ট সমাধান করার জন্য আপনার কষ্টের দিনগুলো এবং আপনার কষ্টের পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে আপনার বিভিন্য কষ্টের বিষয় উল্লেখ করুন একটি চিঠিতে। হয়তো কষ্টের কারণে আপনার কলমের কালিতে কোন লেখা আসছে না অথবা আপনি তাকে মনের কথা খুলে বলতে পারছেন না। সেই ক্ষেত্রে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে আপনারা একটা কষ্টের চিঠি সংগ্রহ করবেন এবং এই কষ্টের চিঠি হয়তো আপনাদের জীবনের বিভিন্ন ঘটনার মিশ্রণের উপরে লেখা হয়েছে।

আপনারা এ কষ্টের চিঠি যখন তাকে পাঠিয়ে দিবেন তখন ভাববে যে এই বিষয়গুলো হয়তো তাকে কেন্দ্র করেই ঘটেছে এবং সে যদি মানুষ হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনার এই কষ্ট লাঘব করবে এবং আপনার পাশে আজীবনের জন্য আবার এসে থাকার প্রতিশ্রুতি দিবে। সেই জন্য মনের মানুষকে অথবা অন্য কোনো মানুষকে একটা কষ্টের লিখে জানিয়ে দিন আপনার ভিতরের কষ্ট কতটা পাগল এবং দীর্ঘ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button