জার্মানি হোমিও ঔষধের নাম ও ঔষধের দাম

আপনারা যারা হোমিও ওষুধে বিশ্বাস করে থাকেন এবং হোমিও ঔষধ খাওয়ার ফলে বিভিন্ন ধরনের রোগ থেকে নিরাময় পেয়েছেন তারা আজকে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে বিভিন্ন ধরনের জার্মানি হোমিও ওষুধের নাম ও ওষুধের দাম সম্পর্কে জেনে নিতে পারেন। তবে দ্রব্যমূল্যের পরিবর্তন হওয়ার কারণে বিভিন্ন সময়ে এই সকল ঔষধের দাম পরিবর্তিত হচ্ছে বলে আমাদের ওয়েবসাইটের প্রদান করা তথ্যের উপর নির্ভর করে আপনারা কিছুটা বেশি বাজেটে ওষুধ গুলো কিনতে পারেন।

তবে আপনাদেরকে আমাদের ওয়েবসাইটে যে তথ্য প্রদান করা হবে তার চাইতে খুব কম বেশি পার্থক্য হবে না। তবে যাই হোক আপনারা যখন হোমিওপ্যাথি ওষুধ খাওয়ার ক্ষেত্রে জার্মান ওষুধ ব্যবহার করতে চাচ্ছেন তাদেরকে বলব যে এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা সিদ্ধান্ত আপনারা গ্রহণ করতে পেরেছেন। কারণ হোমিওপ্যাথি ওষুধের ভেতরে জার্মান কোম্পানির ওষুধ গুলো অত্যন্ত ভালো এবং এগুলো দ্রুত কাজ করে।

বর্তমান সময়ে মানুষজন বিভিন্ন ধরনের সমস্যার মুখে পতিত হন এবং বিভিন্ন ধরনের অসুখ-বিসুখের জন্য চিকিৎসা গ্রহণ করতে থাকেন। আমরা সকলেই জানি যে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা এমন এক ধরনের চিকিৎসা পদ্ধতি যেখানে কখনোই আপনারা পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া পাবেন না। আপনার শরীরের রোগ যে ধরনের বাসা বেধেছে ঠিক সেই রোগের নিরাময় পাওয়ার জন্য আপনারা যখন হোমিওপ্যাথি ওষুধ ব্যবহার করবেন তখন দেখা যাবে যে খুব সহজে তা থেকে নিরাময় পেয়ে যাচ্ছেন। তবে হোমিওপ্যাথি ওষুধ নির্বাচনের ক্ষেত্রে অবশ্যই অভিজ্ঞ ডাক্তার হতে হবে এবং অভিজ্ঞ ডাক্তারের মাধ্যমে আপনি যদি সঠিক ওষুধ নির্বাচন করে তা ব্যবহার করতে পারেন তাহলে সেটা আপনার অনেক কাজে আসবে।

হোমিওপ্যাথি ওষুধ ব্যবহার করার ক্ষেত্রে বর্তমান সময়ে বাজারে গেলে আপনাদেরকে দেশি যে ওষুধগুলো রয়েছে সেগুলো ধরিয়ে দেওয়া হয় এবং বিল করা হয় জার্মানি ওষুধের। কিন্তু আপনি যেহেতু ডাক্তার না সেহেতু আপনি হয়তো জানেন না কিভাবে জার্মানি ওষুধ নির্বাচন করবেন অথবা জার্মানদের দাম কত টাকা। তাছাড়া হোমিওপ্যাথির চিকিৎসা পদ্ধতিতে অধিকাংশ ডাক্তার ওষুধের নাম বলে দেন না বলে আমরা বুঝতে পারি না এগুলো কোন ওষুধ। এলোপ্যাথি ওষুধের ওপরে নাম লেখা থাকে বলে আমরা চাইলে যে কোন দোকান থেকে সেটি কিনে খেতে পারলেও হোমিওপ্যাথির ক্ষেত্রে এ ধরনের কোনো সুযোগ থাকে না।

তাছাড়া বিভিন্ন রোগের ওপরে নির্ভর করে যখন বিভিন্ন পাওয়ারের ওষুধ প্রদান করা হয় তখন ওষুধের গায়ে কোন ধরনের তথ্য প্রদান করা থাকে না বলে আমরা সেগুলো বুঝতে পারি না। তবে আপনি যদি আপনার একান্ত ব্যক্তিগত ডাক্তারের থেকে ওষুধের নাম জেনে নিতে পারেন তাহলে হয়তো সেই ওষুধগুলো সংগ্রহ করার জন্য নিকটস্থ অথবা শহর পর্যায়ের যে সকল পাইকারি দোকান আছে সেখান থেকে জার্মান হোমিওপ্যাথি ওষুধ সংগ্রহ করতে পারবেন।

জার্মান হোমিওপ্যাথি ওষুধ সংগ্রহ করার ক্ষেত্রে অধিকাংশ দোকানদার আপনাদের থেকে বেশি দাম না গ্রহণ করলেও আপনি যদি এটা যাচাই করে কিনতে চান তাহলে সবচাইতে ভালো হবে এবং এক্ষেত্রে ঠকার কোন সম্ভাবনা থাকবে না। তাই জার্মান ওষুধ নির্বাচনের ক্ষেত্রে অথবা নাম জানার ক্ষেত্রে আমাদের ওয়েবসাইট আপনাদেরকে সবসময় গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো প্রদান করে থাকে এবং থাকবেন।

আমরা যেহেতু আপনাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো করে আসছে সেহেতু আপনারা হয়তো এখান থেকে ওষুধের নাম এবং দাম দুটোই জেনে নিতে পারবেন। হোমিওপ্যাথির যে ওষুধ সংস্থা বাংলাদেশ যাবতীয় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে থাকেন তারা যে ওষুধের দাম নির্ধারণ করে থাকেন সেই তথ্য অনুসরণ করে আপনাদের জন্য তা প্রদান করা হবে। তবে আপনি যদি রোগী হিসেবে আমাদের ওয়েবসাইটের পোস্ট ভিজিট করে থাকেন তাহলে বলব যে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোন ওষুধ খাওয়া ঠিক নয়। তবে কোন চিকিৎসক যদি আপনাকে এই ধরনের পরামর্শ প্রদান করে এবং নির্দিষ্ট ওষুধের নাম লিখে দেয় তাহলে সেটার দাম জানার জন্য আপনারা ইন্টারনেটে এসে তথ্য সার্চ করার ক্ষেত্রে আমাদের ওয়েবসাইটের প্রদান করার তথ্য দেখে নিতে পারেন।

আমরা যদি বাজারে বিভিন্ন ধরনের এলোপ্যাথিক ওষুধের দাম জানতে চাই তাহলে দেখা যাবে যে সেগুলো ওষুধের গায়ের মূল্য অনুসরণ করে নির্দিষ্ট পরিমাণ ছাড় দেওয়ার পরে সেই দাম নির্ধারণ করা হয়ে থাকে। কিন্তু হোমিওপ্যাথি ওষুধের ক্ষেত্রে যে দাম নির্ধারণ করা থাকে সেটা হয়তো আপনারা বুঝতে পারবেন না অথবা কোন মাধ্যম দিয়ে হয়তো বুঝে নিতে পারলে আপনাদের জন্য তো ভালো হবে। তাই আপনারা যখন জার্মান ওষুধ ব্যবহার করার জন্য মন স্থির করবেন তখন এটার নাম জেনে নিয়ে বাজারে গিয়ে সংগ্রহ করলে সবচেয়ে ভালো হবে। এই পোস্টের মাধ্যমে আপনারা যখন জার্মানি ওষুধের নাম সর্বপ্রথমে জানবেন তখন আপনাদের জন্য কিনতে যেমন সুবিধা হবে তখন আপনি কম দামে সেটা কেনার জন্য চেষ্টা করতে পারবেন।

আপনারা যখন বাজারে গিয়ে জার্মান ওষুধ চাইবেন তখন অবশ্যই সেটার নাম যদি ভালো হতো উচ্চারণ করতে পারেন তাহলে আপনার ভেতরে এক ধরনের আত্মবিশ্বাস কাজ করবে এবং এই ওষুধ আপনি পূর্বেও কিনেছেন এ ধরনের বিশ্বাসের উপরে আপনাকে কম দামি প্রদান করবেন। তাই আপনারা যখন বাজারে যাবেন তখন আপনাদেরকে হয়তো জার্মান ওষুধের পরিবর্তে বাংলাদেশী ওষুধ অথবা পাকিস্তানি ওষুধ ধরিয়ে দেওয়া হতে পারে।হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা প্রদান করার ক্ষেত্রে যার মানসিক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এবং এক্ষেত্রে আপনাকে অন্য ধরনের ওষুধ কম দামি হিসেবে ধরিয়ে দেওয়ার ফলে রোগের চিকিৎসা করে ফলাফল নাও পেতে পারেন।

তাই জীবনে অভিজ্ঞতার মূল্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ এ বিষয়টিকে মাথায় রেখে আপনারা যখন বাজারে গিয়ে যার মানুষ উৎস সংগ্রহ করবেন তখন সেটার দাম সম্পর্কে যেমন অবগত হতে পারবেন তেমনিভাবে দিনে দিনে এ বিষয়ে আরো অভিজ্ঞ হয়ে উঠবেন। তাই আপনাদের জন্য প্রদান করা জার্মান ওষুধের লিস্ট এখানে দিয়ে দেওয়া হলো এবং লিস্টের সাথে আপনারা বিভিন্ন ওষুধের দাম সম্পর্কে ধারণা অর্জন করে নিতে পারবেন। হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার ক্ষেত্রে জার্মান ওষুধ এর যে কোন ধরনের প্রশ্ন যদি করতে চান তাহলে করতে পারেন এবং এক্ষেত্রে আমরা আপনাদেরকে উত্তর প্রদান করার জন্য অপেক্ষা করছি। সকলের সুস্থতা কামনা করে এই পোস্ট এখানে শেষ করছি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button