শ দিয়ে হিন্দু মেয়েদের আধুনিক নামের তালিকা অর্থসহ

বিভিন্ন ধর্মের মানুষেরা নাম রাখার ক্ষেত্রে বিভিন্ন রীতিনীতি ও নিয়মকানুন মেনে নাম রাখে তবে বর্তমানে আধুনিক স্টাইলিশ নাম রাখার প্রচলন ব্যাপকভাবে দেখা যায়। হিন্দু মুসলিম বা অন্য যে কোন ধর্মের মানুষদের তাদের নাম দিয়ে বোঝা যায় যে তারা কোন ধর্মের অনুসারী। কখনো কখনো নাম দিয়ে নির্ধারণ করা যায় কোন জাতির লোক। একটি মানুষের জীবনে তার নাম কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সবার নিকট পরিচিত হয়।

এমনকি মৃত্যুর পরে মানুষ যখন কাউকে স্মরণ করে তখন সে মানুষের নাম নিয়ে স্মরণ করে। নাম করন বিষয়টা যতটা সহজ মনে হয় প্রকৃতপক্ষে ব্যাপারটা তত সহজ নয়। যদিও নামকরণের কাজটি আকর্ষণীয় কিন্তু একটি শিশুর নাম রাখার ক্ষেত্রে অভিভাবকের দিক বিচার বিশ্লেষণ করে তারপরে নাম রাখে।

এমন সব অর্থ সম্বলিত নাম রাখা হয়েছে সেই সুর যেন বড় হয়ে সে নিজের মধ্যে সেই নামের সুন্দর গুণাবলীগুলো ধারণ করতে পারে এবং সে অনুযায়ী জীবনে চলতে পারে। শিশুর নাম রাখার ক্ষেত্রে এমন কোন নাম চয়েজ করা উচিত নয় যেটা শ্রুতিমধুর নয় কিংবা অর্থ ভালো নয় তা না হলে নামের কারণে অসুস্থ কিংবা বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হতে পারে।

হিন্দু ধর্মের বেশিরভাগ মেয়েদের নাম দেখা যায় তাদের দেবীদের নাম অনুকরণে রাখা। এটি হিন্দু ধর্মের একটি জনপ্রিয় ট্রেন্ড বা প্রথা বলা চলে। জন্মের তিথি, রাশিফল কিংবা তারিখ গণনার মাধ্যমে নাম রাখার প্রচলন হিন্দু ধর্মে ব্যাপকহারে দেখা যায়। তবে বর্তমানে এসব ধর্মীয় ব্যাপার গুলো কিছুটা কমেছে। আধুনিকতার এই যুগে মানুষ স্টাইলিশ হালফ্যাশনের নাম গুলো বেছে নিতে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।

কখনো কখনো নামের বিশেষ অর্থ তেমন প্রাধান্য পাচ্ছে না বরং শুনতে শুধুমাত্র শ্রুতি মধুর হলেই নাম নির্ধারণ করছে মানুষ। তবে নামের অর্থ না জেনেই নাম রাখার প্রচলন খুবই নগণ্য। সুপ্রাচীনকাল থেকেই বিভিন্ন ধরনের পণ্ডিতগণ বিশ্বাস করেন যে নামের অর্থটা ভবিষ্যতে একটি শিশুর মধ্যে পরিলক্ষিত হয় আবার যদি খারাপ অর্থ বহন করে নাও একটি শিশুকে বড় হয়ে সে নিজের মধ্যে সেই খারাপ অর্থ গ্রহণ করতে পারে। তাই অভিভাবকদের নাম রাখার ক্ষেত্রে বিশেষ সর্তকতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে।

দুই অক্ষরের ও তিন অক্ষরের নাম

দুই অক্ষরের ও তিন অক্ষরের নাম বর্তমানে ব্যাপকভাবে প্রচলিত। তবে সকাল থেকেই নামের সংক্ষিপ্ততা ও শ্রুতি মাধুর্যতা দেখে নাম রাখা হয়। মানুষ চাই যে সন্তানের নাম যেন সংক্ষিপ্ত সুন্দর যেটা উচ্চারণ করতে সুবিধা হবে এবং লিখতে সহজ হয়ে। নাম অতটা কঠিন কোনো শব্দ দিয়ে রাখা উচিত না যেটা উচ্চারণ করতে গেলে নামের বিকৃতি ঘটতে পারে এতে করে একটি শিশুর আত্মবিশ্বাস কমে যেতে পারে কিংবা নাম নিয়ে সবার মধ্যে বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যেতে পারে।

তাই দুই অক্ষর বা তিন অক্ষরের নাম গুলো ব্যাপক জনপ্রিয় যেগুলো উচ্চারণের সহজ এবং সুন্দর অর্থ বহন করে। নাম রাখার সময় দুই অক্ষর ও তিন অক্ষরের নাম গুলো সব সময় খুঁজে থাকে মানুষ।

মানুষ তাদের পছন্দের একটি নির্দিষ্ট অক্ষর দিয়ে সন্তানের নামকরণ করতে চায়। হতে পারে যে এই অক্ষরটি পিতা-মাতার নামের প্রথম অক্ষর কিংবা পরিবারের অন্যান্য সন্তানদের নামের প্রথম অক্ষর। তাই আজকে আপনাদের জন্য আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়ে এসেছি বাংলা অক্ষর শ দিয়ে সনাতন ধর্মালম্বীদের মেয়ে শিশুদের জন্য অনেক সুন্দর সুন্দর আধুনিক ও ধর্মীয় কিছু নামের তালিকা। নাম করার পাশাপাশি অনেক সুন্দর ভাবে নামের অর্থ সংগ্রহ করেছি আমরা শুধুমাত্র আপনাদের সুবিধার্থে।

আপনারা যেন অতি সহজে স্বল্প সময়ের মধ্যে অনেকগুলো নামের তালিকা একসাথে পেতে পারেন সেই লক্ষ্যে আমরা শ’অক্ষর দিয়ে অনেকগুলো নাম সংগ্রহ করেছি আমাদের ওয়েবসাইটে। তাই যখনই আপনাদের প্রয়োজন হবে আপনারা ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইটে। শ অক্ষর দিয়ে দুই তিন অক্ষরের এসব নাম গুলো আপনারা হিন্দু ধর্মের মেয়ে শিশুর জন্য পছন্দ করতে পারবেন। আশা করা যায় যে নামগুলো আপনাদের অনেক পছন্দ হবে।

শাহরিয়ার হোসেন

শাহরিয়ার হোসেন একজন ক্ষুদ্র ব্লগার। লিখতে খুব ভালোবাসেন। অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগে ২০১৮ সালের জানুয়ারী থেকে লিখছেন। কাজের চেয়ে নিজের নাম প্রচারের ওপর বেশি গুরুত্ব দেন। সে চিন্তা থেকেই এই ব্লগের উৎপত্তি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button