স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম ২০২০ – Samsung ফোনের দাম ও ছবি 2020

আপনি কি স্যামসাং মোবাইল কিনবেন বলে ভাবছেন? তাহলে বর্তমান বাজার মূল্য সম্পর্কে অবশ্যই ধারণা থাকতে হবে। স্যামসাং 2020 সালে এখন কিছু মোবাইল বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এসেছে যেগুলো দামে সাশ্রয়ী কিন্তু গুণে-মানে সেরা।

আজকের লেখায় আমরা স্যামসাং ব্র্যান্ডের সকল মডেলের মোবাইলের বাংলাদেশের দাম নিয়ে আলোচনা করব। এই লিখাটি পড়ার মাধ্যমে আপনি স্যামসাং মোবাইলের বাজার মূল্য সম্পর্কে জানতে পারবেন। প্রতিটি মডেলের মোবাইলের দামের সাথে সাথে কি কি থাকছে সেই মোবাইলের সাথে তার বিস্তারিত বর্ণনা দেওয়া হয়েছে। সেই সাথে প্রতিটি মডেলের মোবাইলের একটি বা দুটি করে ছবি সংযুক্ত করা হয়েছে।

Samsung মোবাইল ফোনের দাম

স্যামসাং অনেক প্রাচীন একটি মোবাইল কোম্পানি। এটা দীর্ঘদিন যাবৎ বাংলাদেশে সুনামের সাথে ব্যবসা করে চলেছে। প্রথমের দিকে কালার ডিসপ্লে মার্কেটে নিয়ে আসে স্যামসাং। এই মোবাইল গুলো যথেষ্ট শক্তিশালী ছিল। এবং চার্জ থাকত অনেকদিন।

এরপর অডিও ভিডিও মোবাইল এর যাত্রা শুরু হলে সবাইকে পেছনে ফেলে স্যামসাং সামনে এগিয়ে যেতে থাকে। সেসময় মার্কেটে ছিল নোকিয়া এবং মটোরোলা। কিন্তু স্যামসাংয়ের ফিচারের সাথে বেড়ে উঠছিল না কোন ব্র্যান্ড।

এন্ড্রয়েড মোবাইল বাজারে আসলে স্যামসাং ও নতুন উদ্যমে শুরু করে মোবাইল ম্যানুফ্যাকচারিং এর কাজ। এন্ড্রয়েড মোবাইল দিয়েও স্যামসাং মার্কেট দখল করে নেয়।

আজকের আলোচ্য বিষয় স্যামসাং মোবাইলের মার্কেট প্রাইস সম্পর্কে। সুতরাং স্যামসাং নিয়ে আর বেশি কথা বলার প্রয়োজন নেই।

সবচেয়ে কম দামী স্যামসাং মোবাইলের দাম

স্যামসাং মোবাইলের সর্বনিম্ন দাম ২১৫০/ টাকা। এই মোবাইলটির বাজারমূল্য প্রথমে ১৭৫০ টাকা ছিল। ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ এর জন্য মোবাইল কোম্পানিতে এই মডেলের মোবাইলের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। মডেলের নাম কি মনে করতে পারছেন?

জি হ্যাঁ, Samsung Guru Music 2! দুর্দান্ত ব্যবসাসফল মোবাইলটি সকল শ্রেণী পেশার মানুষের কাছে খুবই জনপ্রিয়। এর প্রধান কারণ দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি এবং মোবাইল ফোনটি খুবই শক্তিশালী। যারা মোবাইল ফোনটি ব্যবহার করেন তাদের হাত থেকে কোনো না কোনো সময় কোনটি নিশ্চয়ই পড়ে গেছে। কিন্তু তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি।

এর কারণ মোবাইল টি শক্তিশালী কাঠামোর ওপর তৈরি। এছাড়াও এই ফোনের সাউন্ড কোয়ালিটি খুবই চমৎকার।

Samsung Guru Music 2 মোবাইলের দাম

স্যামসাং গুরু মিউজিক 2 মোবাইল ফোন বেশি ব্যবহৃত হয় মানুষের দ্বিতীয় মোবাইল হিসেবে। অর্থাৎ যারা একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহার করেন তাদের সাহায্যকারী হিসেবে এ ফোনটি ব্যবহৃত হয়। মানুষ এই ফোনটির কলের ক্ষেত্রে ব্যবহার করে থাকে।

কারণ এন্ড্রয়েড মোবাইল থেকে কল করা অসুবিধাজনক।

এই মোবাইলটির জনপ্রিয়তার আরও একটি কারণ রয়েছে। আর তা হলো মোবাইলের সাউন্ড কোয়ালিটি। এই ফোনে অডিও গান শুনতে চমৎকার লাগে।

এছাড়াও আরও একটি কারণে মানুষ এই মডেলের মোবাইল ফোনটি কিনে থাকে। আর সেটা হচ্ছে মোবাইলের হেডফোন। আপনারা জানেন স্যামসাং এর হেডফোন সবচেয়ে সেরা। আপনি যত দামি বা কমদামের স্যামসাং মোবাইল কিনেন না কেন একই কোয়ালিটি হেডফোন পাওয়া যায়।

সে কারণেই হেডফোন পাওয়ার লোভে অনেকেই 2000 টাকা বাজেটের এই মোবাইল ফোনটি কিনেন এবং হেডফোনটি ব্যবহার করেন। আমি এমনও দেখেছি এই মোবাইলের হেডফোনটি 500 টাকা দামে পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে।

স্যামসাং নতুন মোবাইল ২০২০

২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে নতুন কতগুলো মোবাইল ফোন বাজারে আসছে। আকর্ষণীয় ফিচার এবং চমৎকার ডিজাইনের মোবাইল ফোন গুলোর বাজারমূল্য তুলনামূলক কম।

আজকে আমরা তেমন কিছু মডেলের মোবাইল ফোনের দাম নিয়ে আলোচনা করব এবং সেসব ফোনের ফিচার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

Samsung Galaxy A51 মোবাইলের দাম

বর্তমানে মোবাইল ফোনটি ৩০ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রথমে মোড়ক উন্মোচনের সময় দাম ছিল ৩৫ হাজার টাকা। এই মোবাইলটি আপনি স্যামসাং শোরুম বা বিভিন্ন অনলাইন শপ থেকে ক্রয় করতে পারবেন।

মোবাইল ফোনটি নীল, সাদা এবং কালো কালারে পাওয়া যাচ্ছে। সাড়ে ছয় ইঞ্চির বড় ডিসপ্লে রয়েছে ফোনটিতে। এন্ড্রয়েড ভার্সন 10 তারিখ মোবাইল ডিভাইস টি খুব দ্রুত কাজ করে। এছাড়াও রয়েছে ফোনটিতে আকর্ষণীয় ক্যামেরা এবং ভিডিও রেকর্ডিং অপশন।

বড় বড় গেম খেলার জন্য মোবাইল ফোনটি পারফেক্ট। কারণ খুবই শক্তিশালী ইঞ্জিন দ্বারা চালিত হচ্ছে ডিভাইসটি।

Samsung Galaxy A31 মোবাইলের দাম

আকর্ষণীয় কালারের মোবাইল ডিভাইস এর বর্তমান বাজার মূল্য ২৫ হাজার টাকা। দুদিন আগেও এটি ২৭ হাজার টাকায় বাংলাদেশের বাজারে বিক্রি হয়েছে। মোবাইল ডিভাইসটির ওজন ১৮৫ গ্রাম।

ডুয়েল সিম সাপোর্টেড ডিভাইসটির বাটারি ৫০০০ মিলিএম্পিয়ার। 6 জিবি রেম এবং 128gb রম রয়েছে মোবাইল ফোনে। এছাড়া রয়েছে অন স্কিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। ফেস আনলক এবং অন্যান্য আকর্ষণীয় কিছু ফিচার।

শাহরিয়ার হোসেন

শাহরিয়ার হোসেন একজন ক্ষুদ্র ব্লগার। লিখতে খুব ভালোবাসেন। অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগে ২০১৮ সালের জানুয়ারী থেকে লিখছেন। কাজের চেয়ে নিজের নাম প্রচারের ওপর বেশি গুরুত্ব দেন। সে চিন্তা থেকেই এই ব্লগের উৎপত্তি। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে অনার্স কমপ্লিট করেছেন। বর্তমানে একই বিভাগে মাস্টার্স এ অধ্যায়নরত।

Related Articles

Back to top button
Close
Close