জন্মদিনের শুভেচ্ছা, শুভ জন্মদিন!

শুভ জন্মদিন! শুভ জন্মদিন! জন্মদিনের শুভেচ্ছা!

জন্মদিন, আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের একটি দিন। আমরা বিভিন্নভাবে এই দিনটি উদযাপন করে থাকে। বিভিন্ন বয়সের মানুষের কাছে উদযাপনের ভিন্নতা একেক রকম।

ছোট বাচ্চাদের জন্মদিন উদযাপন এক রকমের এবং বড় মানুষদের জন্মদিন উদযাপন ভিন্ন রকমের। তবে লক্ষণীয় ব্যাপার জন্মদিন যারই হোক না কেন, উদযাপন কিন্তু সব বয়সের মানুষই করে।

একটি বিষয়ে খুবই গুরুত্বপূর্ণ আর তা হলো ছোট বাচ্চাদের জন্মদিনে ছোট বাচ্চারা বেশি আনন্দ করতে পারে। অন্যদিকে বয়স্কদের জন্মদিনের ছোট বাচ্চারা তেমন কোন আনন্দ পায় না।

জন্মদিন যারই হোক না কেন আমাদের আজকের আলোচনার বিষয়বস্তু জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা যা শুভ জন্মদিন নামে বহুল পরিচিত। এখানে আমরা বিভিন্ন বয়সের ও শ্রেণী পেশার মানুষের জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা নিয়ে আলোচনা করব।

এছাড়াও এই লিখাটি পড়ার মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন সম্পর্কের মানুষদের নিয়ে লিখা জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা ডাউনলোড করতে পারবেন।

জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা

জন্মদিন উদযাপনের জন্য আমরা প্রিয়জনকে যা বলে শুভেচ্ছা জানাই তাকে এই কথাই জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা বলা হয়। শুভেচ্ছাবার্তা বিভিন্ন ধরনের হতে পারে। আবার জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা বিভিন্ন ভাষায়ও হতে পারে। তবে বাংলাদেশের জনপ্রিয় দুটি ভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা বেশি ব্যবহৃত হয় যেমন,

১/ বাংলা ভাষায়

২/ ইংরেজি ভাষায়

আমরা এখানে বাংলা এবং ইংরেজি ভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা নিয়ে আলোচনা করব।

বাংলা ভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা

বাংলা ভাষাভাষী মানুষের সবচেয়ে প্রিয় অনুভূতি হয় তা নিজের ভাষায় কথা বলা। কেউ যদি মাতৃভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাই তাহলে মনটা আনন্দে ভরে ওঠে। এছাড়াও নিজের ভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা পড়ে যতটা অনুভব করা যায় অন্য ভাষায় এতটা আবেগ অনুভব করা যায় না।

বাংলা ভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা স্থানীয় পর্যায়ের নেতা, শিক্ষক, পিতা-মাতা, বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বজন বা প্রেমিক-প্রেমিকাদের জন্য বহুল ব্যবহৃত হয়।

আমাদের ওয়েবসাইটে সকল ধরনের সম্পর্কের মানুষদের জন্যই বাংলা ভাষায় শুভ জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা পোস্ট করা হয়েছে।

ইংরেজি ভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা

ইংরেজি ভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা প্রধানত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক বা স্কুল, কলেজের ইংরেজির শিক্ষককে জানানো হয়। এছাড়াও জাতীয় পর্যায়ের নেতারা এমপি-মন্ত্রীদের শুভেচ্ছাবার্তা ইংরেজিতে পাঠানো হয়। ইংরেজি ভাষাকে অনেকেই আভিজাত্যের প্রতীক হিসেবে ধরে।

এছাড়াও ইংরেজি ভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা বা মেসেজ পাঠানোর আরও একটি কারণ রয়েছে। গণ্যমান্য ব্যক্তিরা অনেকেই পুরাতন ফিচার ফোন ব্যবহার করেন। ফিচার ফোন গুলোতে বাংলা ভাষা সাপোর্ট করে না।

সে সকল মোবাইল ফোনে বাংলা ভাষায় মেসেজ পাঠালে তা পড়ার উপযোগী থাকেনা। আর এটা আমাদের জানার বাইরে যে আমাদের কাঙ্খিত ব্যক্তির কি ধরনের ফোন ব্যবহার করে। সুতরাং আমরা ইংরেজিতে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বা মেসেজ পাঠাতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে।

সন্তানের জন্মদিনের শুভেচ্ছা

বর্তমানে পিতা-মাতা ও সন্তানের জন্মদিন উদযাপনের ব্যাপারে খুবই সচেতন। অনেক সন্তান জন্মদিন উদযাপন না করলে কান্না করে। মন খারাপ করে বসে থাকে বা না খেয়ে থাকে। সে কারণে সচেতন বাবা মা বছরের একটি দিন ছোটখাটো বা ঘরোয়া পরিবেশে উদযাপন করতে চায়।

এবং জন্মদিন উদযাপনের জন্য বিভিন্ন ধরনের খাবারের আয়োজন করা হয়। কেক কাটার সময় বা আগে পিতা-মাতা তার সন্তানকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা জানায়। বা জন্মদিনের কেকের উপরে বিভিন্ন কিছু লিখা থাকে। এ ধরনের বেশকিছু জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা উপস্থাপন করা হলো এখানে। আশা করব আমাদের আয়োজন আপনার সন্তানের মন ভরিয়ে দিতে সাহায্য করবে।

বান্ধবীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা

জন্মদিনে সবচেয়ে বেশি উদযাপন করে বন্ধু বান্ধবীরা। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ধরনের ঐতিহ্য দেখা যায়। কেক কাটা, বেলুন ফোলানো বা ডিজে পার্টির আয়োজন করা হয় এ ধরনের অনুষ্ঠানের। এবং রংবেরঙের খাবার থাকে মূল আকর্ষণ।

বান্ধবী বলতে আমরা আমাদের ক্লাসমেট বা সহপাঠী কিংবা প্রেমিকাকে বুঝে থাকি। প্রেমিকা বা বান্ধবী যাই বলুন না কেন জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা একই ধরনের।

আমরা এখানে সুন্দর সুন্দর জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা উপস্থাপন করতে চলেছি যেগুলো আপনি আপনার বান্ধবীকে পাঠাতে পারেন।

অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যায়, জন্মদিনের শুভেচ্ছা রাত বারোটার সময় জানানো হয়। বন্ধু বান্ধবীদের মধ্যে রীতিমতো প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে যায় কে আগে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে পারে তা নিয়ে।

জন্মদিনের শুভেচ্ছা কবিতা

বর্তমানে অনেক কবি রয়েছে যারা ফেসবুকে লেখালেখি করে। বাংলাদেশ এবং কলকাতায় বাংলা কবিতার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। কবিদের নিয়ে গঠিত হয়েছে বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপ বা পেজ। এখানে এরা রীতিমতো লিখালিখি করে থাকে।

যখন কোন কবি বা সাহিত্যিকের জন্মদিন হয় তখন এরা কবিতার মাধ্যমে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করে। কারো জন্মদিন উপলক্ষে শ্রদ্ধা, ভালোবাসা, স্নেহ অথবা জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে যে কবিতা লেখা হয় তাকে জন্মদিনের কবিতা বলে।

আমরা এখানে আপনার প্রিয়জনকে পাঠানোর জন্য কিছু শুভ জন্মদিনের কবিতা উপস্থাপন করবো। যেগুলো পাঠিয়ে আপনার ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে পারেন।

স্ত্রীর জন্মদিনের শুভেচ্ছা

স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক গভীর করার জন্য স্ত্রীর জন্মদিনে স্বামী জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা বিনিময় করে থাকে। ইন্টারনেটে বিভিন্ন ধরনের জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা রয়েছে। তবে স্ত্রীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা জানানোর ব্যাপারে খুবই যত্নশীল হতে হবে। কারণ এটা যদি তাদের মন মত না হয় তাহলে বুঝতেই পারছেন কি হতে পারে।

যাইহোক এখন আমরা তেমন কিছু জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা উপস্থাপন করতে চলেছি যেগুলো আপনি আপনার স্ত্রীকে জানাতে পারেন। তবে লক্ষ্য রাখতে হবে আপনার স্ত্রীর বয়সের উপর ভিত্তি করে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা পরিবর্তিত হতে পারে।

ভালবাসার মানুষকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা

আপনি যাকে চোখে হারান, কল্পনা- বাস্তবের অধিকাংশ স্থানজুড়েই যার অবস্থান তার জন্মদিন অবশ্যই আপনার কাছে স্পেশাল এর মধ্যেও স্পেশাল একটি দিন। প্রিয়জনের জন্মদিনে গিফট যেমন তেমনই হোক না কেন উইশ করাটাই আসল ব্যাপার। আপনি কি আপনার প্রয়োজনে জন্মদিনের জন্য স্পেশাল কোন এসএমএস বা শুভেচ্ছাবার্তা খুজছেন তাহলে বলব আপনি ঠিক জায়গাতেই এসেছেন। আমাদের ওয়েবসাইটে আপনি পাবেন আপনার প্রিয়জনকে জন্মদিনের উইশ করার জন্য মজার মজার এসএমএস.
১. হঠাৎ তোমার আগমনে শীতের পুরীতে নেমে এসেছিলো বসন্ত। জীবনে বেঁচে থাকার মানে খুঁজে পেয়েছিলাম তোমারই জন্য। আজ তোমার জন্মদিন, শুভ জন্মদিন প্রিয়। অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও ভালবাসা নিও।
২. তোমাকে আমার লাইফে পেয়ে আমি ধন্য। আজ তোমার শুভ জন্মদিন, অনেক অনেক ভালোবাসা নিও। চলার পথে সারা জীবন পাশে চাই তোমায়। শুভ জন্মদিন।
৩. তোমার মিষ্টি হাসি আমি অনেক অনেক বছর দেখতে চাই, তোমার সুন্দর কথাগুলো হাজার হাজার বছর মুগ্ধ হয়ে শুনতে চাই। তোমার মিষ্টি অভিমান গুলো সারা জীবন দেখতে চাই। আজকের জন্মদিন আরো হাজারবার তোমার জীবনে নেমে আসুক। শুভ জন্মদিন প্রিয় ।
৪. যার সাথে দিনে হাজার বার রাগ অভিমান করা যায়, আবার পরক্ষনেই সব মিটমাট করে নেওয়া যায় আজ সেই ব্যক্তিটির জন্মদিন। আজ তার জন্মদিন যার সাথে হাজার বার ঝগড়া হলেও আমার হাতটি ছাড়ার কথা কখনো মুখে আনে না। আজ তোমার জন্মদিনে তোমাকে জানাই অনেক অনেক শুভেচ্ছা, সারা জীবন আমার হাতটি ধরে এভাবেই পাশে থেকো।
৫. তুমি হঠাৎ এসেই আমার জীবনকে বদলে দিয়েছিলে, জীবনের আসল মানে শিখিয়েছিলে তুমি। সুখে -দুঃখে সব সময় পাশে পেয়েছি তোমায়। আজ তোমার জন্মদিনে শুধু একটি কথাই বলবো, এখন পর্যন্ত যেভাবে পাশে থেকেছি ঠিক সেভাবেই আজীবন পাশে থাকবো। শুভ জন্মদিন।
৬. জন্মদিনের অনেক অনেক প্রীতি ,ভালোবাসা এবং শুভেচ্ছা নিও। আগামী দিনগুলো তোমার আরো সুখে শান্তিতে ভরে উঠুক, তোমার স্বপ্নগুলো বাস্তবে রূপ পাক। আর হ্যাঁ, ভুলেও কখনো আমার হাতটি ছাড়ার কথা ভেবোনা! হ্যাপি বার্থডে ডেয়ার।
৭. আজ আমার কাছে দিনটি খুবই স্পেশাল, কারণ আজ আমার লাইফের স্পেশাল ব্যক্তিটির জন্মদিন। তুমি না আসলে হয়তো ভালোবাসার মানে খুঁজে পেতাম না! জীবনের স্বাদ অপূর্ণ থেকে যেতো,আজ তোমার জন্মদিন।আজ কি বলবো খুঁজে পাচ্ছিনা। তবে যেইটা আগেও বলেছি এখনও বলছি, অনেক অনেক ভালোবাসি তোমায়।
৮. তোমার ভালো লাগা গুলো আমার কাছে ভালোবাসা। তোমার হাসিতে যেনো মুক্তা ঝরে, তোমার দিকে হাজার বছর ধরে চেয়ে থাকলেও মুগ্ধতা যেন একটুও কমে না। হাজার বছর ধরে মুগ্ধ হতে চাই আমি, তোমার ভালোবাসায় বিভোর হয়ে থাকতে চাই সারা জীবন। আজকের জন্মদিন আরো শতবার তোমার জীবনে নেমে আসুক। শুভ জন্মদিন ডেয়ার।
৯. আজ আমার ভালোবাসার মানুষের জন্মদিন। তোমাকে না দেখলে হয়তো সব দেখায় অপূর্ণ থেকে যেত, জীবনের মানে ব্যর্থ হয়ে যেতো। সারা জীবন তোমার ওই হাতটি ধরে থাকতে চাই, তোমার ভালোবাসায় বারবার নিজেকে নতুন করে খুঁজে পেতে চাই। শুভ জন্মদিন, অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও ভালবাসা নিও।
১০. ভালোবাসা বলতে আমি তোমাকে বুঝি, ভীষণ অসম্ভবেও আমি তোমাকে খুঁজি।আজ তোমার শুভ জন্মদিন, তোমার সাথে কাটানো আমার প্রতিটি দিনই স্পেশাল, তোমার সাথে কাটানো প্রতিটি মূহুর্ত আমার কাছে এক অদ্ভুত ভালো লাগার বিষয়। আজ তোমার শুভ জন্মদিন, জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল। আজীবন এভাবেই পাশে থেকো।
পুত্রকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা

প্রেমিকার জন্মদিনের শুভেচ্ছা

১.শুভ জন্মদিন প্রেয়শী। তুমি একদিন হঠাৎ এসে আমার মনে বসন্ত জাগিয়েছিলে, তোমার ওই মায়াবী চোখের চাহনি আমায় বিমোহিত করেছিলো।আজ তোমার জন্মদিনে তোমাকে বলতে চাই,কখনো ছাড়বোনা তোমায়। অনেক অনেক ভালোবাসি প্রিয়া।
২.তোমার ঐ মিষ্টি হাসিতে আমি সারা পৃথিবীর সৌন্দর্য খুঁজে পাই। তোমার প্রতি টি কথা আমার কানে যেনো নদীর কলকল রব তোলে, তোমার ভালোবাসা আমি সারাজীবন পেতে চাই,হ্যাপি বার্থডে মাই ডেয়ার।
৩.হ্যাপি বার্থডে মাই লাভ, জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা নিও। তোমার সব স্বপগুলো পূর্ণ হোক, আগামী দিনগুলো সুখে শান্তিতে ভরে উঠুক। এভাবেই আমার হাতটি ধরে সারাজীবন পাশে থেকো।
৪.কখনো ভাবিনি তোমার আমার সম্পর্ক ভালোবাসায় রুপ পাবে, সৃষ্টিকর্তার এক অপূর্ব সৃষ্টি তুমি। সবটুকু সৌন্দর্য দিয়ে যেন তোমাকেই সৃষ্টি করা হয়েছে। অনেক অনেক ভালোবাসি প্রিয়, শুভ জন্মদিন।
৫.তুমি একদন্ড পাশে না থাকলে কেমন ফাঁকা ফাঁকা লাগে, তোমার কথা এক মুহূর্ত না শুনলে সবকিছু এলোমেলো লাগে। আমার জন্যই সৃষ্টিকর্তা তোমাকে এতো সুন্দর করে সৃষ্টি করেছিলো। আজকের জন্মদিন যেনো শতবার আসে তোমার জীবনে, শুভ জন্মদিন প্রিয়।
৬.প্রিয়া তুমি কোথা হতে এসে আমায় তোমার ভালোবাসায় বিভোর করেছিলে? তোমার ভালোবাসায় আমি আজন্ম ডুবে থাকতে চাই। জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও ভালবাসা নিও।হ্যাপি বার্থডে মাই ডেয়ার।
৭.ভালোবাসার মানে আমি জানতাম না, তুমিই শিখিয়েছিলে কীভাবে ভালোবাসতে হয়। প্রেমের মানে আমি জানতাম না,তোমাতেই খুঁজে পেয়েছিলাম প্রেমের মানে।আজ তোমার জন্মদিন, তোমাকে উইশ করার মতো কোনো কথাই আজ আমি খুঁজে পাচ্ছিনা। শুধু বলতে চাই ভালোবাসি।
৮.সৃষ্টিকর্তার অপার দান তুমি আমার জীবনে, তোমাকে জীবনে পেয়ে আমি ধন্য। তোমাকে আমি আজীবন ভালোবাসতে চাই, অনেক অনেক ভালোবাসি প্রিয়। শুভ জন্মদিন।
৯.সকালের ফুটন্ত গোলাপের মতো নিষ্পাপ তুমি, তোমার ভালোবাসায় বন্দী আজ আমি। তোমার চোখের চাহনি আমায় উদাস করেছে প্রিয়া, ভালোবাসায় ভরিয়ে দিতে চাই তোমায়। জন্মদিনের শুভেচ্ছা নিও।
১০.তোমার ভালোবাসায় আমি পাগল হয়েছি, তোমার প্রেমে আমি জীবনের মানে খুঁজে পেয়েছি। তোমার হাতটি ধরে আমি সারাজীবন হাঁটতে চাই, সকালের শিশির ভেজা ঘাসের উপর একসাথে হাঁটতে চাই। শুভ জন্মদিন প্রিয়া, অনেক অনেক ভালোবাসি তোমায়।

দেরিতে জন্মদিনের শুভেচ্ছা

মানুষ মাত্রই ভুল। সেই হিসেবে তার প্রিয় জন বা কাছের কারো জন্মদিন ভুলে যাওয়া অস্বাভাবিক কিছু না, আবার আপনি আপনার প্রিয়জনের জন্মদিন মনে রাখেন নি বলে সে রাগ করবে এটা অস্বাভাবিক না।

তবে যখনই আপনার মনে পড়বে আপনি আপনার প্রিয়জনের জন্মদিনের কথা ভুলে গেছেন অথবা সঠিক টাইমে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে পারেননি তখন আপনি কোন অজুহাত না দেখিয়ে সুন্দর বাক্যে সুন্দর উপায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে আপনার প্রিয়জনের রাগ ভাঙ্গাতে পারেন।

সঠিক টাইমে সবার প্রথমে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোর চেয়ে আপনি যদি চান সবথেকে দেরিতে শুভেচ্ছা জানিয়ে আপনার প্রিয় জন বা কাছের কারো মন জয় করে নিতে পারেন , যদি আপনি শুভেচ্ছা জানানোর মতো করে শুভেচ্ছা জানাতে পারেন।

ধরুন আপনি আপনার একমাত্র ছেলের জন্মদিন ভুলে গেছেন। সবার উইশ করা শেষ, আপনার ছেলে ঘরের এক কোনায় মুখ গোমড়া করে বসে আছে। কারোর বলাতে অথবা হঠাৎ করেই আপনার মাথায় আসে আজ আজ আপনার ছেলে জন্মদিন ছিল, যেখানে প্রতিবছর আপনি প্রথম উইশ করেন সেখানে এবছর বেমালুম ভুলে গেছেন।

এখন আপনার কি করা উচিত? আপনি কি বাহানা দেখাবেন? অনেকে হয়তো এমন বলে যে বাবারা অনেক ব্যস্ত মানুষ হয় যার কারণে এ বিষয়গুলো মনে রাখতে পারেনা।

এরকম অজুহাতে সিচুয়েশন আরো খারাপ হতে পারে, তার চেয়ে ভালো আপনি সবাইকে সারপ্রাইজ দিয়ে নিজের হাতে আবার নতুন করে বার্থডে সেলিব্রেশন করলেন।

অথবা আপনি যদি আপনার ছেলের থেকে দূরে থাকেন তাহলে ফোনে অথবা ফেসবুকে মেসেজ না দিয়ে আপনি নিজে হাতে বার্থডে উইশ লিখে সাথে কিছু একটা গিফটে দিয়ে আপনার ছেলের কাছে পাঠাতে পারেন।

এতে সবথেকে আগে করা ফোনে মেসেজের উইশ এর চেয়ে আপনার ছেলে বেশি আনন্দ পাবে।

প্রত্যেক মানুষের কাছে নিজের জন্মদিন স্পেশাল একটি দিন, এবং সবাই চায় তার জন্মদিনে সবাই তাকে উইশ করুক অথবা দিনটা সে ভালভাবে সেলিব্রেট করতে চায়।

এই দিনে অনেকেরই অনেকের কাছ থেকে কিছু আকাঙ্ক্ষা থাকে। নিজের জন্মদিনের কাছের কেউ বা আপনার অত্যন্ত প্রিয় মানুষ যিনি আপনার থেকে বার্থডে উইশ ,বার্থডে গিফট আকাঙ্ক্ষা করে থাকে।

এখন আপনি যদি আপনার প্রিয় মানুষের জন্ম তারিখটা ভুলে যান তাহলে একটু কষ্ট পাবে এটা জানা কথা, তবে এ মুহূর্তে যে মুহূর্তে আপনার মনে পরবে সেই মুহূর্তে আপনি যদি ভালোভাবে বার্থডে সেলিব্রেট করতে পারেন তাহলে ব্যাপারটা সামাল দেওয়া যায়।

এখন আপনার প্রিয় ব্যাক্তি যদি আপনার কাছাকাছি থাকে তাহলে তাকে সরাসরিই বার্থডে উইশ করতে পারেন তার পছন্দের কোন গিফট দিয়ে। অথবা তার পছন্দের কোন রেস্টুরেন্টে গিয়ে তার বার্থডেটা আবার ভালোভাবে সেলিব্রেশন করলেন।

আবার যদি আপনি দূরে থাকেন তাহলে ফোনে মেসেজ দিয়ে উইশ টা সেরে নিতে পারেন এবং কোনোভাবে তার কাছে সারপ্রাইজ গিফট পাঠিয়ে তাকে চমকে দিতে পারেন।

বড় ভাইয়ের জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা

বড় ভাই নামটা শুনলেই সম্মানে মাথা অবনত হয়ে যায়। পিতার পরেই যে ছায়ার মত থাকে তিনি হচ্ছেন বড়ভাই। বড় ভাই সারা জীবন আমাদের জন্য অনেক ত্যাগ তিতিক্ষা করে থাকেন। তার জন্মদিনে একটু শুভেচ্ছা পেতেই পারেন।

আমরা যদি বড় ভাইকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাই তাহলে তিনি অনেক বেশি খুশি হবেন এবং আমাদের জন্য মন ভরে দোয়া করে দিবেন। তবে অনেকে দেখা যায় কি লিখতে হবে তা খুঁজে পায় না। মূলত তাদেরকে সাহায্য করার জন্যই আজকের এই লেখা। আমাদের এখান থেকে আপনি সুন্দর সুন্দর এবং শ্রদ্ধাপূর্ণ জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা পাবেন যেগুলো আপনি বড় ভাইয়ের কাছে পাঠিয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানাতে পারবেন।

জন্মদিনের শুভেচ্ছা ব্লগ

জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা নিয়ে সারা বছর অনেক সার্চ হয়। যারা ইন্টারনেট থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা সংগ্রহ করতে চায় তারা ইন্টারনেটে বিভিন্ন ব্লগ সাইট ঘাটাঘাটি করে। আপনাদের কষ্টকে লাঘব করার জন্য আমরা এমন কিছু জন্মদিনের শুভেচ্ছা ব্লগ নিয়ে হাজির হলাম। এখানে দেশের জনপ্রিয় একটি ব্লগ সাইটের নাম উল্লেখ করা হলো। আশা করবো এটা থেকে আপনি উপকৃত হবেন।

Shahriar1.com – বাংলা ভাষার ওয়েবসাইট

আপনারা যারা আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করেছেন তারা ইতোমধ্যে জেনে গেছেন এখানে জন্মদিন সংক্রান্ত সকল কিছু পাওয়া যায়। কিভাবে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা পাঠাবেন বা কিভাবে তা উদযাপন করতে হয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে এখানে। আমাদের ওয়েবসাইট থেকে যেকোন তথ্য বিনামূল্যে সংগ্রহ করতে পারবেন। উল্লেখ্য এখানে সকল বয়সের এবং পেশার মানুষের জন্য জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা রয়েছে।

শুভ জন্মদিন বড় ভাইয়া

বড় ভাইয়াকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য এখানে পাঁচটি আকর্ষণীয় শুভেচ্ছাবার্তা উল্লেখ করা হলো।

১/ আজকের এই দিনে আপনি পৃথিবীতে এসেছেন বলেই আমার জীবনটা এত নিরাপদ এবং সুন্দর। এজন্য আমি আল্লাহতালার কাছে কৃতজ্ঞ। আশা করি আপনার ভবিষ্যৎ জীবন সুন্দর এবং সার্থক হবে। শুভ জন্মদিন বড় ভাইয়া।

২/ বড় ভাই এমন একটা শব্দ, যা শুনলেই আমার মনে হয় নিরাপদ একটি আশ্রয়স্থল। আপনি আমাদের জন্য যা করেছেন তার ঋণ কখনো শোধ হবার নয়। আজকের এই দিনে আপনার ভবিষ্যৎ জীবন সুন্দর হোক এই প্রার্থনা করি। আপনি আপনার পরিবার নিয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করেন এই দোয়া রইল। শুভ জন্মদিন বড় ভাইয়া।

৩/ জন্মদিন শুভ হোক। আজকের এই বিশেষ দিনে দোয়া করি যেন অতীতের মতো করেই আমার ছায়া হয়ে থাকেন। অতীতেও যেমন বিপদ আপদে সাহায্য করেছেন ভবিষ্যতেও সেভাবে শক্ত খুঁটির মত নিরাপত্তা দিয়ে যাবেন এই দোয়া করি। আপনার নতুন বছর শুভ হোক।

রাজনৈতিক বড় ভাইয়ের জন্মদিনের শুভেচ্ছা

ছোট ভাইয়ের জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা ও স্ট্যাটাস

পরিবারের সকলেরই জন্মদিন আমাদের কাছে স্পেশাল একটি দিন। তবে স্পেশাল এর মাঝে আরো স্পেশাল হয়ে ওঠে যদি জন্মদিনটি নিজের ছোট ভাইয়ের হয়। বিশেষত যারা পরিবারের ছোট হয় তাদের আদর- আহ্লাদ একটু বেশিই থাকে। তাই তাদের জন্মদিনটি একটু বেশি জমকালো ভাবে পালন না করলে কোথাও যেন একটা কমতি থেকে যায়। ছোট ভাই জন্মদিনে গিফট তো মাস্ট দিতেই হবে তার সাথে যদি মজার মজার উইশ করা যায় হলে তো কোনো কথাই নেই। আজকাল পরিবারের সবাই চাকরি অথবা পড়াশোনার সুবিধার্থে একসাথে থাকতে পারে না বা একসাথে থাকলেও মোবাইলে শুভেচ্ছা জানানোটাই বেটার মনে করে। চলুন জেনে নেওয়া যাক ছোট ভাইয়ের জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য কিছু মজার মজার এসএমএস।

১.ছোটোবেলা থেকেই যার সাথে আমার শুধু মারামারি- ঝগড়াঝাঁটির সম্পর্ক আজ তার জন্মদিন।আমি তো ইচ্ছে করেই ভুলে যেতে চেয়েছিলাম আজকের এই দিনটি। কিন্তু সবার উইশ করা দেখে আমার ও ইচ্ছে হলো উইশ করার, যাইহোক শুভ জন্মদিন।আর হ্যা ,আমার সাথে হিংসেমি ছেড়ে দে ভালো হয়ে যা।
২.শুভ জন্মদিন আমার ছোট দুষ্টু মিষ্টি ভাই।তোর জন্মদিনে তোর কাছে থাকতে পারছিনা, কাছে না থাকলে কি হবে? আমি তো সবসময় তোর মনের মধ্যেই থাকি।হ্যাপি বার্থডে মাই ডেয়ার।
৩.তোর আর আমার বয়সের পার্থক্য টা খুব বেশি না হলেও তুই আমার ছোট, সেই হিসেবে আমাকে তোর সম্মান করা উচিত। কিন্তু তোর মতো বাঁদরের থেকে সম্মান আশা করাটাও বোকামি, যাইহোক তোর জন্মদিনে একটি প্রার্থনাই করি ,বোনকে সম্মান দেওয়ার শুভ বুদ্ধি যেনো তোর উদয় হয়। শুভ জন্মদিন।
৪.ছোটোবেলার প্রতিটি মূহুর্ত আমার ভখলো কেটেছে কারণ তুই আমার খেলার সাথি ছিলি। তুই শুধু আমার ভাই না, আমার সবথেকে ভালো বন্ধু। অনেক ভালোবাসি তোকে ছোট, শুভ জন্মদিন।
৫.হ্যাপি বার্থডে ভাই,বাবা মায়ের কলিজার টুকরা তুই আর আমার চোখের মণি। জীবনে অনেক বড় হ, মানুষের মতো মানুষ হয়ে দেশ ও দশের মুখ উজ্জ্বল কর। জন্মদিনের প্রীতি ও শুভেচ্ছা রইল।

ছোট ভাইকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা এসএমএস

১. শুভ জন্মদিন,ছোট। এখন যেমন হাসিখুশি আছিস চিরকাল সেভাবেই থাকিস, তোর বাকি জীবনটা সুন্দর ও সাফল্যমন্ডিত হোক।

২. ছোটবেলার মারামারি, ঝগড়াঝাঁটির সাথী ছিলি তুই। তবে তুই এখন অনেক ভালো হয়ে গেছিস, এখন আমার অনেক কেয়ার করিস। আজ দেখতে দেখতে আরো এক বছর পার হয়ে গেলো, শুভ জন্মদিন। অনেক অনেক বড় ও সুন্দর মনের মানুষ হ এই কামনাই করি।

৩. সকল স্পেশাল দিনের মধ্যে সবচেয়ে স্পেশাল দিনটি আজ আমার কাছে কারণ আজকে আমার আদরের ছোট ভাইটির জন্মদিন। তোকে নিয়ে আমার গর্ব হয়, নিজের ছোট ভাই হিসেবে তোকে পেয়েছি বলে। আজ তোর শুভ জন্মদিন।জীবনের প্রত্যেক ধাপে সাফল্য বয়ে আসুক, সামনের পথগুলো আরো সুন্দর হোক। শুভ জন্মদিন।

৪. তুই আমার ছোট হলেও বয়সে আমরা প্রায় কাছাকাছিই। বাসায় যখন একসাথে থাকতাম এমনকি এখনও আমার সবচেয়ে কাছের বন্ধু তুই,আমার জীবনে সকল ভালো মন্দের ভাগীদার তুই। জীবনের প্রত্যেকটি ধাপে সাফল্য বয়ে আসুক , হাসি খুশিতে ভরে উঠুক তোর জীবন। জন্মদিনে শুভেচ্ছা নিস।

৫. ব্রিজের নিচ থেকে কুড়িয়ে আনা আমার ছোট দুষ্টু ভাইটির নাকি আজ জন্মদিন। তোর জন্মদিন কিন্তু আমি ভুলিনি, দেখেছিস? ঠিক মনে রেখেছি। ছোটবেলার দুষ্টুমি গুলো ছেড়ে দে, এখন তো একটু বড় হয়েছিস। মনোযোগসহকারে লেখাপড়া কর এবং জীবনে অনেক বড় হ। শুভ জন্মদিন ।

৬. জীবনের প্রত্যেকটা দোষ নিজে করে আমার ঘাড়ে যে দোষ চাপিয়ে দেয় সে ছোট ভাইটির আজকে জন্মদিন। দেখতে দেখতে আরও একটা বছর পার করে ফেললি তবুও বাঁদরামিগুলো আজও কমেনি। যাইহোক আজ তোর জন্মদিন! আজ অন্তত কোন পাগলামো করিস না, শুভ জন্মদিন।

৭. লাইফে তোর আর আমার মধ্যে ঝগড়া হওয়ার মেইন টপিক ছিল, বাবা- মা কাকে বেশি ভালোবাসে? যখন তুই ঝগড়ায় হেরে যেতিস, হাউমাউ করে কেঁদে দিতিস। আজ আবার সেই ছিঁচকাঁদুনে ভাইয়ের জন্মদিন, শুভ জন্মদিন আমার দুষ্টু মিষ্টি ছোট ভাই।

৮. আজ আমার ছোট ভাইয়ের জন্মদিন। এর থেকে আমার কাছে আনন্দের আর কিইবা হতে পারে? জন্মদিনের শুভেচ্ছা নিস। আল্লাহ তালা তোকে দীর্ঘায়ু দান করুক। লাইফে অনেক বড় হ, বাবা-মা কে এখন যতটা ভালোবাসিস বড় হয়ে ততটাই যেন ভালোবাসা থাকে। শুভ জন্মদিন।

৯. বাবা-মা আমাকে একটু বেশি ভালোবাসি বলে সব সময় গাল ফুলে থাকা ছেলেটির আজকে নাকি জন্মদিন! আমিতো ভুলেই গিয়েছিলাম। যাই হোক বার্থডে বয়কে আজ আর না রাগাই, শুভ জন্মদিন। আমার সাথে হিংসেমি ভাবটা ছেড়ে দিয়ে একটু ভাল হ, এর থেকে বেশি কিছু আর চাই না।

১০. পরিবারের সবার ছোট সদস্যটির আজকে জন্মদিন, হ্যাঁ আজ আমার আদরের ছোট ভাইটির জন্মদিন। চারিদিকে জমকালো পরিবেশ দেখে আমার কিন্তু একটু হিংসে হচ্ছে। আমি জানি পড়াশোনায় তুই অনেক ভালো, একটু ধৈর্য সহকারে এগোলে লাইফে অনেক সাফল্য অর্জন করতে পারবি। তোর ছোটবেলার স্বপ্ন মস্ত বড় ইঞ্জিনিয়ার হবি , আজ তোর জন্মদিনে প্রাণ খুলে দোয়া করি তুই যেনো তোর গন্তব্যে পৌঁছতে পারিস। জন্মদিনের অনেক অনেক প্রীতি ও শুভেচ্ছা রইল।

শুভ জন্মদিন ভাই বন্ধু

বড় ভাইকে নিয়ে স্ট্যাটাস

শুভ জন্মদিন প্রিয় ভাইয়া

শুভ জন্মদিন ভাইজান

জন্মদিনের মজার শুভেচ্ছা

১. আজকে এই ধরণীর বুকে জন্ম নিয়েছিল এক মহান বীর পুরুষ, সে আর কেউ নয় সে আমাদের প্রাণ প্রিয় বন্ধু। তার মনটা খুব উদার, তার মুখে কোন সময় মিথ্যা কথা শোনা যায় না। আর কোন মিথ্যা কথা বলতে পারছি না, যাই হোক বন্ধু ট্রিটটা দিয়ে দিস। শুভ পয়দা দিবস।

২. শত শত রমণীর ক্রাশ, রুপে যাহার আগুন জ্বলে ,যার কারণে শত শত রমণী রাতে ঘুমাইতে পারেনা সেই নায়ক বন্ধুর আজ পয়দা দিবস। শুভ পয়দা দিবস বন্ধু। উইশ করা শেষ, এইবার ট্রিট চাই।

৩. আজকে তোর বার্থডে একটুও মনে ছিল না, জুকার কাক্কুও নোটিফিকেশন পাঠাইতে ভুলে গেছে। যাই হোক দেরিতে উইশ করার জন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত। শুভ পয়দা দিবস ।

৪. ফেসবুক-মেসেঞ্জারে আমার যে বন্ধুটির হাজার হাজার সংসার, ক্যাম্পাসে যে বন্ধুটি হাজার-হাজার রমণীর ভাইয়া আজ তার জন্মদিন। তোমার অনেক কুকীর্তির স্ক্রিনশর্ট আমার কাছে আছে বন্ধু, এগুলো রাখতে হয় আর কি! তোমার মতো হারকিপ্টাকে টাইট দেওয়ার জন্য। শুভ জন্মদিন, ট্রিটটা দিয়ে দিস নইলে কি অবস্থা হবে তা আন্দাজ করতে পারছো নিশ্চয়।

৫.শুভ জন্মদিন মেকাপ ওয়ালী। আটা ময়দা মাখা কমায় দে,নয়লে দুলাভাই তোর রিয়াল ফেইস দেখে ভিমড়ি খাবে, তখন ফুলশয্যার রাতে আবার হসপিটালে কাটাইতে হবে। তোকে ট্রিট নিয়ে কিছু বলতে হবেনা জানি কারণ আমাদের বান্ধুপিটা অনেক বড় মনের মানুষ।

৬.হ্যাপি বার্থডে বন্ধু।ক্যাম্পাসের গোয়েন্দা তুই।কে কার সাথে চিপায় গেলো, কার সাথে কার ব্রেকআপ হলো সবখবর তোর কাছে থেকে পাওয়া যায়। দোয়া করি বন্ধু আগামী দিনে আরো বড় গোয়েন্দা হয়ে দেশ ও দশের মুখ উজ্জ্বল কর। শুভ পয়দা দিবস।

৭.ওহে সুন্দরী, তোমার জন্য হাজার হাজার প্রেমিক পুরুষ দেবদাস হয়ে বসে আছে। তুমি কাউকেই পাত্তা দাওনা, তাড়াতাড়ি মিঙ্গেল হও,হ্যা জন্মদিনের ট্রিট তো দিবাই আর খুব শীঘ্রই আমরা তোমার মিঙ্গেল হওয়ার ট্রিটের আশায় রইলাম।
নেতার জন্মদিনের শুভেচ্ছা স্ট্যাটাস

শুভ জন্মদিন ছোট ভাই sms

নোয়াখালী ভাষায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা

শাহরিয়ার হোসেন

শাহরিয়ার হোসেন একজন ক্ষুদ্র ব্লগার। লিখতে খুব ভালোবাসেন। অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগে ২০১৮ সালের জানুয়ারী থেকে লিখছেন। কাজের চেয়ে নিজের নাম প্রচারের ওপর বেশি গুরুত্ব দেন। সে চিন্তা থেকেই এই ব্লগের উৎপত্তি। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে অনার্স কমপ্লিট করেছেন। বর্তমানে একই বিভাগে মাস্টার্স এ অধ্যায়নরত।

Related Articles

Back to top button
Close
Close