টেলিটক এসএমএস অফার ও প্যাকেজ ২০২১ – জেনে নিন টেলিটক সিমের সকল এসএমএস প্যাকেজ ও মেয়াদ

বাংলাদেশের একমাত্র সরকারি টেলিকম অপারেটর হলো টেলিটক। টেলিটক বিভিন্ন ধরনের উন্নত সেবা প্রদান করেো গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতে ব্যর্থ হয়েছে। এর প্রধান কারণ হিসেবে নেটওয়ার্ক কাভারেজকে দায়ী করা হয়।

আমাদের আজকের আলোচনার বিষয় টেলিটক এসএমএস অফার ও প্যাকেজ ২০২১। নিতে পারবেন কিভাবে খুব সহজে চালু করতে হয় টেলিটক সিমের সকল এসএমএস প্যাকেজ।

তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে চলুন মূল আলোচনায় শুরু করা যাক।

টেলিটক এসএমএস প্যাকেজ

গ্রাহকদের আকৃষ্ট করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ইন্টারনেট প্যাকেজ চালু করেছে টেলিটক। ইন্টারনেট এবং মিনিট প্যাকেজ এর সাথে সাথেই এসএমএস এর ক্ষেত্রে টেলিটক বেশ কিছু চমকপ্রদ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এর আওতায় এখন টেলিটক হতে দেশের সর্বনিম্ন রেটে এসএমএস পাঠানো যাচ্ছে।

টেলিটক বেশ কিছু এসএমএস প্যাকেজ এর কথা ঘোষণা করেছে। গ্রাহকগণ তাদের ইচ্ছামত প্যাকেজ পছন্দ করে নিতে পারে। টেলিটক এসএমএস প্যাকেজ এর ক্ষেত্রে একটা বিষয় না বললেই নয়। আর তা হল এর দীর্ঘ দিনের মেয়াদ। আপনি কম সংখ্যক এসএমএস কিনেও দীর্ঘ দিন মেয়াদ উপভোগ করতে পারবেন।

১০০ এসএমএস ১০ টাকা

যেকোনো অপারেটরে পাঠানোর জন্য আপনি 100 এসএমএস পাচ্ছেন মাত্র 10 টাকায়। আকর্ষণীয় এই প্যাকেজটি এর মেয়াদ থাকবে 5 দিন। প্যাকেজটি এক্টিভেট করার দিন থেকে 5 দিন পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে এই মেসেজগুলো।

প্যাকেজটি আপনি দুইটি উপায়ে এক্টিভেট করতে পারবেন। টেলিটকের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে চালু করা যাবে এই প্যাকেজটি। এছাড়াও ইউএসএসডি কোড ডায়াল করার মাধ্যমে এক্টিভেট করতে পারবেন খুব সহজেই।

*111*10# ডায়াল করলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু হয়ে যাবে এই এসএমএস অফার। তবে অবশ্যই আপনার মেইন একাউন্ট ব্যালেন্স এ 10 টাকার বেশি থাকতে হবে। ইমারজেন্সি ব্যালেন্স ব্যবহার করে এই অফার এক্টিভেট করা যাবে না।

টেলিটকে আরো একটি জনপ্রিয় এসএমএস বান্ডেল রয়েছে। নিচে সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

২০০ এসএমএস ৫ টাকা

বিশাল এই এসএমএস প্যাকেজ এর ব্যাপারে যে কথাটি সর্ব প্রথমে মনে রাখতে হবে তা হল এই এসএমএস গুলো শুধুমাত্র টেলিটক থেকে টেলিটক নাম্বারে পাঠানো যাবে। অর্থাৎ শুধুমাত্র টেলিটক থেকে টেলিটক নাম্বার এ ব্যবহারের ক্ষেত্রে এই প্যাকেজটি কিনতে পারবেন।

টেলিটক থেকে অন্য কোন অপারেটরে পাঠানোর জন্য এই প্যাকেজটি প্রযোজ্য নয়। এই প্যাকেজটির মেয়াদ থাকবে মাত্র তিন দিন। মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে এসএমএস ব্যালেন্স শূন্য হয়ে যাবে।

এই এসএমএস বান্ডেল চালু করার জন্য ডায়াল করতে হবে *111*5#। প্যাকেজের সাথে ভ্যাট ও সারচার্জ প্রযোজ্য। সুতরাং প্যাকেজটি কেনার পূর্বে অবশ্যই মেইন একাউন্ট ব্যালেন্সে 6 টাকা থাকতে হবে।

 এসএমএস বান্ডেল কেন কিনবেন

বর্তমানে সিম কোম্পানিগুলো যেমন গ্রামীণফোন, এয়ারটেল, টেলিটক, বাংলালিংক বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অফার দিয়ে থাকে ব্যবহারকারীদের মাঝে।

সব সিম কোম্পানির অফার গুলো একরকম না কিছুটা ভিন্নতা রয়েছে। এসি কম্পানি ফুল্ল সিম কোম্পানিগুলো বিভিন্ন এসএমএস প্যাকেজ অফার দিয়ে থাকে। কেমন কেমন যেমন গ্রামীনফোনে 2 টাকায় 25 টি এসএমএস প্যাকেজ রয়েছে।

সাধারণত যেখানে একটি এসএমএস করতি খরচ হয় 56 পয়সার মত সেখানে এসএমএস প্যাকেজ এর মাধ্যমে মেসেজ করলে খরচ অনেক কম হয়, প্রায় দুই পয়সার মতো খরচ হয় বললেই চলে।

কিছু কিছু সিম কোম্পানি কল প্যাকেজের সাথে ৫০০ বা তারও বেশি এস এম এস ফ্রি দিয়ে থাকে। গ্রাহক পর্যায়ে অনেক সুবিধা হয় প্যাকেজের মাধ্যমে মেসেজিং করলে।

তাছাড়া বর্তমানে প্রেমিক, প্রেমিকাদের জন্য এ সুযোগটি অনেক লাভজনক কারণ অল্প খরচেই তাঁরা অনেক মেসেজিং করতে পারে।

কিছু প্যাকেজ আছে যার মেয়াদ থাকে ৩ দিন তবে মাসব্যাপী মেয়াদেও প্যাকেজ কিনতে পাওয়া যায়। সুতরাং নিজের সুবিধার্থে আপনি এস এম এস প্যাকেজ কিনে নিতে পারেন এবং নিজের ফোন খরচ বাঁচাতে পারেন।

পাশাপাশি প্রিয়জনের খবরাখবর ও জেনে নিতে পারেন সাশ্রয়ীমূল্যে। আপনি আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী বিভিন্ন খরচের বিভিন্ন মেয়াদের মেসেজিং প্যাকেজ কিনে নিতে পারেন।

শেষ কথা

আমাদের আর্টিকেল আপনার কেমন লেগেছে তা কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন। আমরা চেষ্টা করেছি আপনার সামনে শতভাগ সঠিক তথ্য উপস্থাপন করার জন্য। আমাদের প্রয়াস ভালো লাগলে অবশ্যই ওয়েবসাইট বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন। এরকম তথ্যপূর্ণ আর্টিকেল পেতে আবার ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট।

শাহরিয়ার হোসেন

শাহরিয়ার হোসেন একজন ক্ষুদ্র ব্লগার। লিখতে খুব ভালোবাসেন। অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগে ২০১৮ সালের জানুয়ারী থেকে লিখছেন। কাজের চেয়ে নিজের নাম প্রচারের ওপর বেশি গুরুত্ব দেন। সে চিন্তা থেকেই এই ব্লগের উৎপত্তি। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে অনার্স কমপ্লিট করেছেন। বর্তমানে একই বিভাগে মাস্টার্স এ অধ্যায়নরত।

Related Articles

Back to top button
Close
Close