ছেলেদের পিক তোলার স্টাইল

মেয়েদের ও ছেলেদের পিক তোলার স্টাইল এক নয়। ছেলেরা ভিন্ন স্টাইলে পিক তুলতে ভালোবাসে। বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার বা বয়সের মধ্যে আলাদা আলাদা ভঙ্গিমাতে পিক তুলতে লক্ষ্য করা যায়।

স্টুডেন্টরা যে স্টাইলে ছবি তুলে সেই স্টাইলে কিন্তু একজন শ্রমিক অথবা চাকরিজীবী ছবি তোলে না।

ইয়াং জেনারেশনের ছেলেদের দেখা যায় কিছু বিশেষ পোজে ছবি তুলতে। অনেক ছেলেরা ছবি তোলার সময় তাঁর বন্ধুদের বলে দোস্ত আমি পরে যাচ্ছি অবস্থা কিন্তু আসলে পরছিনা এমন সময় ক্লিক করবি।

অনেকেরই ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ প্রোফাইলে এমন পিক দেখা যায়। আবার অনেককে দেখা যায় খুবই গভীর চিন্তায় মগ্ন এমন স্টাইলে পিক তুলতে, যাতে একটা গাম্ভীর্যের ভাব আসে।

রাইডিং করা অবস্থায় পিক তুললে কেমন একটা হিরো হিরো ভাব আসে,তাই অনেকেই রাইডিং অবস্থার পিকচার অগ্রাধিকার দেয় বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে আপলোড করার জন্য।

লক্ষ্য করলে দেখা যায় রাইডিং পিকচার আপলোড করলে বেশি লাইক কমেন্ট পাওয়া যায়।তাই রাইডিং পিক আপলোড করতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন অনেকেই।

আবার অনেকে সবার কাছে নিজেকে দেবদাসের মতো করে উপস্থাপন করতে বেশি পছন্দ করে।তাই আনমনে উদাস মনে বসে থাকা অবস্থার পিক তুলছ তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করে।

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে কতটা ভেঙ্গে পরেছে তা প্রেমিকাকে বোঝানোর জন্য আবার অনেকে স্মোকিং অবস্থায় দেবদাস হয়ে পিক দেয়।এমন হাজারো স্টাইলে পিক তুলতে দেখা যায় বর্তমান জেনারেশনের ছেলেদের।

ভার্সিটি পড়ুয়া ছাত্ররা বিশেষ করে যারা ফার্স্ট ইয়ার তাদের মধ্যে এমন কাউকে দেখা যায় না যে ভার্সিটির সামনে দাঁড়িয়ে ছবি তুলেনি। পিকচারের ব্যাকগ্রাউন্ডে যাতে ভার্সিটি আসে এমন পোজ নিয়ে ছবি তুলে অধিকাংশ স্টুডেন্ট ।

এমনভাবে পিক তোলার মাঝে সত্যিই একটা আলাদা গর্ববোধ কাজ করে।
মেডিকেল বা ডেন্টাল পড়ুয়া ছাত্ররা এপ্রোন গায়ে দিয়ে পিক আপলোড না দিলে যেন তাদের মেডিকেল লাইফ টাকেই ব্যর্থ মনে করে।

ক্যাম্পাসকে ব্যাকগ্রাউন্ড হিসেবে রেখে সাদা অ্যাপ্রন গায়ে ফার্স্ট ইয়ারেই যেনো তারা ডাক্তার সাজে। ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া ছাত্ররাও তাদের নিজ নিজ স্টাইলে ছবি তুলে ফেসবুকে আপলোড দেয়।

চাকুরিজীবী ছেলেরা স্টাইলের থেকে সাদামাটা পিক আপলোড করতেই ভালোবাসে, তাঁরা সাদামাটা ভাবে পিক তুলে। বিজনেসম্যানরা দামী দামী কারের পাশে বা জমকালো কোনো বড় বড় পার্টিতে গিয়ে সেলফি তুলে।

অর্থাৎ একেক প্রফেশনের ছেলেরা একেক স্টাইলে পিক তুলে। তবে বিজনেসম্যান না হলে কি কোনো বড় পার্টিতে গিয়ে ছবি তোলা যায়না? হ্যা অনেকেই তুলে তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বিজনেসম্যানদের দেখা যায়।

প্রকৃতি প্রেমিক ছেলেরা প্রকৃতির মাঝে ছবি তুলতে বেশি ভালোবাসে। যেমন ধানক্ষেতে কৃষকদের সাথে অথবা জেলে সেজে নৌকায় বিভিন্ন ভাবে পোজ দিয়ে জবি তুলে।

ছবি তোলার ক্ষেত্রে ছেলেদের মাসেলগুলো যদি মজবুত দেখা যায় তবে অনেক আকর্ষণীয় মনে হয়। তাই ছবি উঠানোর ক্ষেত্রে এই বিষয়টি মাথায় রাখা উচিত।

শাহরিয়ার হোসেন

শাহরিয়ার হোসেন একজন ক্ষুদ্র ব্লগার। লিখতে খুব ভালোবাসেন। অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগে ২০১৮ সালের জানুয়ারী থেকে লিখছেন। কাজের চেয়ে নিজের নাম প্রচারের ওপর বেশি গুরুত্ব দেন। সে চিন্তা থেকেই এই ব্লগের উৎপত্তি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button